শুরুতেই ২ উইকেট হারিয়ে বিপাকে বাংলাদেশ

উইকেটে যথেষ্ট ঘাস আছে, রয়েছে আর্দ্রতাও। সেটা কাজে লাগিয়ে সর্পিল সুইং আদায় করে নিচ্ছেন ভারতীয় পেসার উমেশ যাদব। আর ছন্দময় বোলিং করছেন ইশান্ত শর্মা।

সেই তোড় শামলাতে পারলেন না বাংলাদেশ দুই ওপেনার ইমরুল কায়েস ও সাদমান ইসলাম। ব্যাটিং ইনিংসে সতর্ক শুরুর পর উমেশের শিকার হয়ে ফেরেন ইমরুল। সেই রেশ না কাটতেই ইশান্তর বলির পাঁঠা হন সাদমান।

শুরুতেই ২ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়েছেন টাইগাররা। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাদের সংগ্রহ ২ উইকেটে ১৩ রান।

বৃহস্পতিবার ইন্দোরে টস জিতে আগে ব্যাটিং বেছে নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হক। এ নিয়ে নতুন অধ্যায় শুরু করেন তিনি। ক্যারিয়ারে প্রথম এবং ১১তম অধিনায়ক হিসেবে পথচলা শুরু করেন পয়েট অব ডায়নামো।

এ দিয়ে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু করেছে বাংলাদেশ। টেস্ট ‘বিশ্বকাপের’ দলের প্রথম ম্যাচে একাদশে নেই কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমান। ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে একদম নির্বিষ ও খরুচে ছিলেন তিনি।

সাম্প্রতিক সময়ে টেস্টেও ফিজের পারফরম্যান্সটা নজরকাড়া নয়। নিজের সবশেষ ৩ টেস্টে নিয়েছেন কেবল ২ উইকেট। স্বভাবতই ছিটকে গেছেন তিনি। তার জায়গায় খেলছেন ডানহাতি পেসার এবাদত হোসেন।

৭ ব্যাটসম্যান ও ৪ বোলার নিয়ে একাদশ সাজিয়েছে বাংলাদেশ। দলে জায়গা পেয়েছেন মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন।

টেস্ট র‌্যাংকিং ও শক্তিমত্তায় ভারতের চেয়ে যোজন যোজন পিছিয়ে বাংলাদেশ। আইসিসি র‌্যাংকিংয়ে ১ নম্বরে আছে কোহলি অ্যান্ড কোং। সেখানে ৯ নম্বরে আছেন টাইগাররা।

তবু তাদের হালকাভাবে নিচ্ছেন না মেন ইন ব্লুরা। একাদশে এক পরিবর্তন এনে শক্তিশালী দল গঠন করেছে ভারত। বাঁহাতি স্পিনার শাহবাজ নাদিমের স্থানে ঢুকেছেন ইশান্ত শর্মা। ৩ পেসার ও ২ স্পিনার নিয়ে দল সাজিয়েছে তারা।

বাংলাদেশ একাদশ: ইমরুল কায়েস, সাদমান ইসলাম, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোহাম্মদ মিঠুন, লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, আবু জায়েদ চৌধুরী ও ইবাদত হোসেন।

ভারত একাদশ: রোহিত শর্মা, মায়াঙ্ক আগারওয়াল, চেতেশ্বর পুজারা, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), অজিঙ্কা রাহানে, রবীন্দ্র জাদেজা, ঋদ্ধিমান সাহা (উইকেটরক্ষক), রবিচন্দ্রন অশ্বিন, ইশান্ত শর্মা, মোহাম্মদ শামি ও উমেশ যাদব।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত