আমরা দক্ষিণ আফ্রিকার চেয়েও ভালো খেলব : পাপন

টি-টোয়েন্টি সামর্থ্যে ভারতের চেয়ে অনেক পিছিয়ে বাংলাদেশ। ভারতের ব্যাটসম্যানরা চাপ সামলাতে পারলেও এ জায়গায় ব্যর্থ হয়েছে লিটন-সৌম্যরা। যার কারণে শেষ ম্যাচের সঙ্গে সিরিজও হারতে হয়েছে বাংলাদেশকে। এমনটাই মনে করেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। টেস্টে ভারত আরও শক্তিশালী হলেও বাংলাদেশ ভালো করবে-এমন প্রত্যাশাও বোর্ড প্রধানের।

আক্ষেপ নিয়েই টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষ করেছে বাংলাদেশ। যদিও এ সিরিজ হতে পারতো অনেক প্রাপ্তির। নাঈম শেখের দারুণ ব্যাটিং স্বপ্ন দেখাচ্ছিল ভারতের মাটিতে প্রথম সিরিজ জয়ের। তবে সেটা হয়নি অন্যদের দায়িত্বহীন ব্যাটিংয়ে।

টি-টোয়েন্টিতে ১৭৫ রানের জয়ের লক্ষ্যটা কখনোই সহজ না। বাংলাদেশের জন্য তা আরও কঠিন হয়ে যায় শুরুতেই লিটন-সৌম্যর খামখেয়ালি ব্যাটিংয়ে। পরে আফিফ-মাহমুদুল্লাহও একই পথ অনুসরণ করেন। অথচ একই পরিস্থিতি থেকে কী দুর্দান্ত ভাবেই না ঘুরে দাঁড়ায় ভারত। চাপের মুখেও অনভিজ্ঞ দলটা জিতে নেয় সিরিজ। মাঠে বসে খেলা দেখা বিসিবি সভাপতি বাংলাদেশের এমন হার কোনো ভাবেই মানতে পারছেন না। তার কাছে সমস্যাটা ব্যাটসম্যানদের টি-টোয়েন্টি সামর্থ্যে।

তিনি বলেন, ভারতের লোয়ার অর্ডারের ব্যাটসম্যানরাও কী ভালো খেলল। অসাধারণ ছিল। এদিক থেকে আমরা অনেক পিছিয়ে। সে জায়গায় আমাদের লিটন, সোম্য, মুশফিক, রিয়াদরা রানই করতে পারল না। এক সময় মনে হচ্ছিলো অনেক বড় ব্যবধানেই হেরেই যাব আমরা। নাঈম একাই সাহস নিয়ে খেলেছে। এর মানে হলো সামনে আরও নতুন ছেলেদের সম্ভাবনা আছে।

দারুণ ভাবে সিরিজ শুরু করেও টি-২০ সিরিজ শেষ হলো হার দিয়ে। সামনে চ্যালেঞ্জ টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের। ঘরের মাঠে টানা ১১ সিরিজ জয়ের অনন্য রেকর্ড সঙ্গে নিয়ে মাঠে নামবে বিরাট কোহলিরা। ফিরবেন দলের মূল তারকা ক্রিকেটাররাও। তারপরও আশাবাদী বোর্ড প্রধান পাপন। তিনি বলেন, ভারতের ধারণা দক্ষিণ আফ্রিকা থেকেও আমরা ভালো খেলব। এখন এটা যদি আমরা করতে পারি দক্ষিণ আফ্রিকা থেকেও ভালো করতে পারি সেটাই হবে আমাদের সবচেয়ে বড় পাওয়া।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত