পদ্মা সেতুর ৮৪.৫ শতাংশ কাজ সম্পন্ন

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষের স্বপ্নের পদ্মা সেতুর ২৩ ও ২৪ নম্বর পিলারের ওপর ১৫তম স্প্যানটি বসানো হয়েছে। মঙ্গলবার এই স্প্যানটি বসানোর মাধ্যমে জাজিরা প্রান্তে পদ্মাসেতুর ১৬৫০ মিটার দৃশ্যমান হল। মুন্সিগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে বসানো হয় ৪টি স্প্যান, সেখানে দৃশ্যমান হয়েছে ৬০০ মিটার। এ নিয়ে মোট দৃশ্যমান হল ২ হাজার ২৫০ মিটার। এর মাধ্যমে সেতুর কাজ প্রায় ৮৪ দশমিক ৫ শতাংশ শেষ হয়েছে। সেতু বিভাগের প্রকৌশলী হুমায়ুন কবীর এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

সেতু বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে মাওয়ার মুন্সিগঞ্জের কুমারভোগের বিশেষায়িত জেডি থেকে ১৫তম স্প্যান নিয়ে শক্তিশালী ভাসমান ক্রেন তিয়া নি হাউ জাজিরার উদ্দেশে রওনা হয়। নদীতে পলি পড়ে নাব্যতা হারিয়ে ফেলার কারণে সময় মতো স্প্যানটি জাজিরা পৌঁছাতে দেরি হয়। মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ২৩ ও ২৪ নম্বর পিলারের ওপর ১৫তম স্প্যানটি বসানোর মধ্যদিয়ে পদ্মা সেতুর কাজ আরেক ধাপ এগিয়ে যায়।

জানা গেছে, ২০১৭ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর সেতুর ১ম স্প্যান, ২০১৮ সালের ২৮ জানুয়ারি দ্বিতীয়, ১০ মার্চ তৃতীয়, ১৩ এপ্রিল ৪র্থ, ২৯ জুন ৫ম, ২০১৯ সালে ২৩ জানুয়ারি ৬ষ্ঠ, ২০ ফেব্রুয়ারি ৭ম, ২০ মার্চ ৮ম, ১৮ এপ্রিল ৯ম স্প্যান বসানো হয়। প্রতিটি স্পেনের দৈর্ঘ্য ১৫০ মিটার। ৪২টি পিলারের ওপর ৪১টি স্প্যান বসিয়ে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু নির্মাণ করা হবে। এর মধ্যে সবকটি পিলার এরই মধ্যে দৃশ্যমান হয়েছে।

সেতু বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. হুমায়ুন কবীর বলেন, আজ মঙ্গলবার পদ্মা সেতুর ১৫তম স্প্যানটি বসানো হল। ইতিমধ্যে সেতুর প্রায় ৮৪ দশমিক ৫ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। চলতি বছরের মধ্যে সবকটি স্প্যান বসিয়ে সেতুটি দৃশ্যমান করে তুলব বলে আশা করছি।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত