গণভবনে প্রবেশের সুযোগ পাননি ওমর ফারুকসহ যুবলীগের শীর্ষ ৪ নেতা

প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে প্রবেশের সুযোগ পাননি আওয়ামী যুবলীগের প্রভাবশালী চার কেন্দ্রীয় নেতা। গণভবনে প্রবেশের ক্ষেত্রে তাদের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এই চার নেতার প্রথমেই রয়েছেন যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী। এছাড়া অন্য তিনজন হলেন সংগঠনের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুর রহমান মারুফ, নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন এমপি ও আতিউর রহমান দিপু।

রোববার বিকেল ৫টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা যুবলীগ নেতাদের বৈঠকে ডেকেছেন। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত যুবলীগ নেতারা সেখানে আসতে শুরু করেছেন। তবে দেখা যায়নি যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী, প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুর রহমান মারুফ, নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন ও আতিউর রহমান দিপুকে।

গণভবনে প্রবেশ করা এক নেতা সমকালকে জানান, বৈঠকে যারা থাকবেন তাদের তালিকা টাননো হয়েছে। ওই তালিকায় চার নেতার নাম নেই।

সংগঠনের নেতারা জানিয়েছেন, বিতর্কিত ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ ওঠায় তাদের বৈঠকে ডাকা হয়নি। অর্থাৎ এই চার নেতা গণভবনে নিষিদ্ধ হয়েছেন। তারা আগামীতে যুবলীগের কোনো কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত হতে পারবেন না। সংগঠনের জাতীয় কংগ্রেসেও তাদের সম্পৃক্ততা থাকবে না। তাদের দৃষ্টিতে, অতীতে আর কখনই সংগঠনের কংগ্রেসের আগে এই ধরণের বৈঠক হয়নি। কিছু নেতার বিতর্কিত ও প্রশ্নবিদ্ধ ভূমিকার কারণে বৈঠকটি হয়েছে।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত