অন্য নারীর গর্ভ ভাড়া করে কেন আব্রামকে জন্ম দিলেন শাহরুখ-গৌরী দম্পতি

সারোগেসি হলো সন্তান জন্মদানের জন্য কোনো নারীর গর্ভ ভাড়া নেয়া। এই প্রক্রিয়ায় কোনো সন্তানহীন দম্পতি অথবা কোনো একক মা বা বাবা সন্তান লাভের জন্য কোনো নারীর গর্ভ ভাড়া নিতে পারেন। শুধু শাহরুখ খানই নন বরং বলিউডের অনেক নিঃসন্তান দম্পতিই এই পন্থা অবলম্বন করে সন্তানের পিতা মাতা হয়েছেন।

এখন প্রশ্ন হলো দুই সন্তানের জনক হওয়া স্বত্ত্বেও কেন শাহরুখ খানের ছেলে আব্রাম সারোগেসির মাধ্যমে জন্ম নেয়? যতদূর জানা গেছে, দু’টি সন্তান থাকা সত্ত্বেও শাহরুখ ও তার স্ত্রী গৌরী তৃতীয় সন্তান আনতে ব্যর্থ হচ্ছিলেন। এই সময় গৌরীর বয়স ৪০ পেরিয়ে গিয়েছে। শাহরুখের বয়সও বেশি। দু’বছর ধরে চেষ্টা করেও তৃতীয় গর্ভসঞ্চারে সফল না হওয়াতে তারা প্রাথমিকভাবে স্থির করেন দত্তক নেবেন।

তবে তারা যেখানে চিকিৎসা করাচ্ছিলেন সেই ক্লিনিক তাদের সারোগেসির মাধ্যমে সন্তান জন্মদানের পরামর্শ দেয়। উল্লেখ্য, ওই একই ক্লিনিকে সালমান খানের ভাই ও তার সাবেক স্ত্রীরও এক সন্তান সারোগেসির মাধ্যমে জন্ম নেয়। যাই হোক, শাহরুখ-গৌরীর সন্তান আব্রামের সারোগেট মাদার) ঠিক কে ছিলেন তা প্রকাশ্যে আনা হয়নি। কারণ এই বিষয়টিকে গোপন রাখাই নিয়ম।

এখন কার গর্ভে আব্রাম তার জীবনের প্রথম নয় মাস কাটিয়েছে সেটা বড় কথা নয়, বড় কথা এটাই যে শাহরুখের শুক্রাণু ও গৌরীর ডিম্বানুকে গবেষনাগারে ফার্টিলাইজ (নিষিক্ত) করে সেই ভ্রূণটিকেই সারোগেট মাদারের জরায়ুতে স্থানান্তরিত করা হয়েছিল। সুতরাং, আব্রামের পালক মা গৌরী ও জৈবিক বাবা অবশ্যই শাহরুখ। আব্রামের জন্ম কিছুটা আগেই হয়ে যায়। জন্মকালে তার ওজন ছিল দেড় কিলোগ্রাম।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত