ইলিশ মাছ ধরতে বাংলাদেশে এসে ২৩ ভারতীয় জেলে আটক

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে মোংলা বন্দরের অদূরে বঙ্গোপসাগরের ফেয়ারওয়ে বয়া এলাকা থেকে নৌবাহিনীর টহলরত জাহাজ ট্রলারসহ জেলেদের আটক করে। বঙ্গোপসাগরের বাংলাদেশ জলসীমায় অনুপ্রবেশ করে মাছ শিকারের দায়ে আরো ২৩ ভারতীয় জেলেকে আটক করেছে নৌবাহিনী। এ সময় জব্দ করা হয় এফবি স্বর্ণদ্বীপ ও এফবি আমৃতে নামের দুটি ভারতীয় ফিশিং ট্রলার। পরে শুক্রবার বিকেলে আটক ভারতীয় জেলেদের মোংলা থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

মোংলার দিগরাজ নৌঘাঁটির কর্মকর্তা এসএম ভূইয়া আটক জেলেদের বিরুদ্ধে ১৮৯৩ সালের সামুদ্রিক মৎস্য অধ্যাদেশের ২২ ধারায় থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। আটকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর বিকেলেই তাদের বাগেরহাট আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। বাগেরহাট আদালতের বিচারক আসাদুল ইসলাম তাদের কারাগারে পাঠানো নির্দেশ দেন। আটক সব জেলের বাড়ি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর-চব্বিশ পরগনা জেলার কাঁকদ্বীপ উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে।

এর আগে মঙ্গলবার রাতে বঙ্গোপসাগরের ফেয়ারওয়ে বয়া এলাকায় থেকে ১৫ জেলেকে আটক করে নৌবাহিনী। মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন, ভারতীয় জেলেরা অবৈধভাবে দেশের জলসীমায় ঢুকে মাছ ধরার সময় বৃহস্পতিবার রাতে নৌবাহিনী দুটি ট্রলারসহ ২৩ জনকে আটক করে শুক্রবার বিকেলে থানা পুলিশে হস্তান্তর করে। বিকেলে ভারতীয় ওই জেলেদের বাগেরহাট আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত