শ্রীলেখা বললেন ‘ও মুসলিম আমি হিন্দু, আমরা ২০ বছর ধরে বন্ধু’

প্রকাশিত: জানু ২৪, ২০২৩ / ০৮:৫৫অপরাহ্ণ
শ্রীলেখা বললেন ‘ও মুসলিম আমি হিন্দু, আমরা ২০ বছর ধরে বন্ধু’

ধর্ম ও সীমানার ঊর্ধ্বে গিয়ে যে বন্ধুত্ব হয় এমন দৃষ্টান্ত দেখালেন কলকাতার অভিনেত্রী শ্রীলেখা ও বাংলাদেশি অভিনেত্রী মুক্তি। সম্প্রতি বাংলাদেশে এসেছিলেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা। এরপর দুজন দেখা করেন। হাসি-আড্ডায় কেটে যায় সময়।

নিজেদের বন্ধুত্বের ব্যাখ্যা দিয়ে শ্রীলেখা বলেন, ‘আমরা বন্ধু। আজকের না, ২০ বছরেরও বেশি। ও মুসলিম, আমি হিন্দু। ওর দেশ বাংলাদেশ, আমার ভারত, তাতে ওর বা কী, আমারই বা কী? আমরা বন্ধু। আমরা পারলে তোমরা কেন পারবে না? বন্ধু হও, ভালো থাকো।’

এই অভিব্যক্তি সোশ্যাল হ্যান্ডেলে প্রকাশ করেছেন কলকাতার অভিনেত্রী। আর শ্রীলেখার মুখোমুখি হয়ে মুক্তি সাংবাদিকদের বলেন, ‘ওকে আমি ইনশাআল্লাহ, আলহামদুলিল্লাহ শিখিয়েছি।’

এর উত্তরে শ্রীলেখা বলেন, ‘আল্লাহ ওর আর ঈশ্বর আমার, এটা আমি মনে করি না।’

বেশ খানিকটা সময় ঢাকায় একসঙ্গে কাটিয়ে কলকাতায় ফিরে গেছেন শ্রীলেখা। ফিরেছেন একরাশ মুগ্ধতা নিয়ে, অজস্র ভালোবাসা নিয়ে। শ্রীলেখা কলকাতা গিয়ে সেসব মনে করেছেন। ঢাকার প্রতি, ঢাকার মানুষের প্রতি জানিয়েছেন কৃতজ্ঞতা।

সর্বশেষ জানালেন ঢাকার তার এক বন্ধুর কথা। মজা করে শ্রীলেখা এটাও জানালেন যে ঢাকায় থাকাকালীন তার ওজন তিন কেজি বেড়েছে। আর এই ওজন বাড়ার পেছনে মুক্তি দায়ী।

রুমানা ইসলাম মুক্তি ‘শ্রাবণ মেঘের দিন’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে পরিচিত হন। ১৯৯৩ সালে ‘পদ্মা নদীর মাঝি’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে অভিনয় শুরু করেন মুক্তি। তাঁর আরেকটি পরিচয় রয়েছে, মুক্তি জনপ্রিয় অভিনেত্রী আনোয়ারা বেগমের মেয়ে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন