এরদোগানের প্রশ্নঃ ন্যাটোর সদস্যপদ আশা করে কীভাবে সুইডেন

প্রকাশিত: জানু ২৪, ২০২৩ / ০১:৪৬অপরাহ্ণ
এরদোগানের প্রশ্নঃ ন্যাটোর সদস্যপদ আশা করে কীভাবে সুইডেন

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, ভয়ঙ্কর বর্ণবাদী ও ধর্মবিদ্বেষকে উসকে দেওয়া সুইডেনের ন্যাটোর সদস্যপদ পাওয়ার আশা করা উচিত না। কারণ এ জঘন্য কাজের পর ন্যাটোর সদস্যপদ পাওয়ার ক্ষেত্রে তুরস্ক এ দেশটিকে আর সমর্থন দেবে না। খবর বিবিসির।

সম্প্রতি সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে অবস্থিত তুরস্কের দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ ও পবিত্র কুরআন পোড়ানোর অনুমতি দেওয়ার ঘটনায় সোমবার (২৩ জানুয়ারি) এ মন্তব্য করেন এরদোগান।

সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে এরদোগান বলেন, ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য সুইডেন যেন আমাদের কাছ থেকে সমর্থন পাওয়ার আশা না করে।
পরিষ্কার করে বলে দিচ্ছি— যারা আমাদের দূতাবাসের সামনে ওই ধরনের জঘন্য কাজ করতে পারে, তারা আমাদের কাছ থেকে বিন্দুমাত্র সহায়তা পাবে না।

পবিত্র কুরআন পোড়ানোর এবং কুর্দিদের বিক্ষোভের অনুমতি দেওয়ার সুইডিশ সরকারের সিদ্ধান্তকে অত্যন্ত নিন্দনীয় ও অগ্রহণযোগ্য বলে দাবি করেন এরদোগান। তিনি বলেন, কোনো ধর্মকে অপমান করার অধিকার কারও নেই। আর আমরা সবসময় সততার সঙ্গে কথা বলি। আমাদের স্পষ্ট বক্তব্য— যখন কেউ আমাদের অসম্মান করবে, তখন আমরাও তাদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেব।

তিনি আরও বলেন, যদি তুরস্ক ও মুসলিমদের প্রতি সুইডেন কোনো সম্মান না দেখায়, তা হলে ন্যাটোসংক্রান্ত কোনো বিষয়ে আমরা তাদের সহায়তা করব না। তুরস্ক যেহেতু আগে থেকেই ন্যাটোর সদস্য, সেহেতু এটি অন্য দেশকে এ সামরিক জোটে যোগদানে বাধা দেওয়ার এখতিয়ার রাখে।

এরই মধ্যে দেশটি সুইডেনের কাছে বেশ কিছু দাবি পেশ করেছে, যার মধ্যে কিছু কুর্দিদের প্রত্যর্পণের বিষয়ও রয়েছে। শনিবার (২১ জানুয়ারি) পবিত্র কুরআন পোড়ানোর প্রায় দুই সপ্তাহ আগে স্টোকহোমের তুরস্ক দূতাবাসের সামনে এরদোগানের কুশপুত্তলিকা পোড়ান সুইডেনের কিছু কুর্দি বিক্ষোভকারী।

পরে উগ্র ডানপন্থি রাজনৈতিক দল হার্ড লাইনের বিতর্কিত নেতা রাসমুস পালুদান পুলিশি নিরাপত্তার মধ্যে দাঁড়িয়ে কুরআনের একটি কপিতে আগুন ধরিয়ে দেন।

এ ঘটনায় তুরস্কের প্রতিরক্ষামন্ত্রী হুলুসি আকর সুইডিশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী পাল জনসনের সফর বাতিল করতে বলেছেন। আগামী সপ্তাহেই আঙ্কারায় সফর করতে চেয়েছিলেন জনসন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন