শীতে গরম পানি দিয়ে গোসল, উপকার না ক্ষতি জেনে নিন

প্রকাশিত: জানু ৭, ২০২৩ / ০৪:৪৯অপরাহ্ণ
শীতে গরম পানি দিয়ে গোসল, উপকার না ক্ষতি জেনে নিন

হাড় কাঁপানো কনকনে শীতে গরম পানি ছাড়া গোসল করার কথা যেন ভাবাই যায় না। শরীরে পানির ফোঁটা পড়লেই জমে যাওয়ার উপদ্রপ। এমন অবস্থায় প্রতিদিন গরম পানি ছাড়া গোসল করার কথা ভাবতেই পারেন না।

তবে অনেকের মনেই প্রশ্ন জাগে এই গরম পানিতে গোসল ক্ষতি বেশি না লাভ! তবে গরম পানি নিয়ে রয়েছে নানা মুনির নানা মতামত। চলুন জেনে নেওয়া যাক গরম পানি দিয়ে গোসল করা ক্ষতি না উপকার।

এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ডায়াবেটিস রোগীদের ক্ষেত্রে গরম পানিতে গোসল খুব উপকারি। নিয়মিত গরম পানিতে গোসল করলে রক্তে শর্করার মাত্রা ঠিক রাখে। ওজন কমানোর ক্ষেত্রেও গরম পানি খুব কাজে আসে।

যাদের ঘুম না আসার সমস্যা, তারা রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে সারা বছরই গরম পানিতে গোসল করতে পারেন। এতে শরীর ঝরঝরে থাকবে। সঙ্গে গরম পানি রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রেখে হৃদপিন্ডকে সচল রাখতে সাহায্য করে।

তবে গরম পানি একটানা ব্যবহার করলে ত্বকের আদ্রর্তা কমে যায়। যার ফলে ত্বক রুক্ষ হয়ে যায়। বিশেষ করে যারা এমনিতেই শুষ্ক ত্বকের সমস্যায় ভুগছেন, তারা গরম পানি ব্যবহার করা বন্ধ করে দিন।

সঙ্গে গরম পানির কারণে আপনার চুল দুর্বল হয়ে পড়তে পারে। ফলে চুল পড়ার পরিমাণ বেড়ে যায়। এমনকী, মাঝখান থেকে চুল ভেঙেও যেতে পারে। অতিরিক্ত গরম পানি আপনার চুলের প্রাকৃতিক আর্দ্রতা টেনে নেয়।

সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, গরম পানি দিয়ে গোসল করলে ছেলেদের ফার্টিলিটি কমে যায়। যে সমস্ত ছেলেরা দীর্ঘদিন ধরে গরম পানিতে গোসল করে আসছেন তাদের সন্তান হওয়ার ক্ষেত্রে সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই ছেলেদের খুব বেশি গরম পানি দিয়ে গোসল করা উচিত নয়।

এক্ষেত্রে গরম আর ঠান্ডা মিশিয়ে একটি সহনীয় তাপমাত্রার পানি গায়ে ঢালুন। কনকনে ঠান্ডাও নয়, আবার খুব গরমও নয়। মেয়েরা বিশেষ করে শ্যাম্পু করার সময় যতটা সম্ভব কম গরম পানি ব্যবহার করুন। এবং গরম পানিতে গোসলের পর শুষ্ক হয়ে পড়া ত্বকে ময়েশ্চারাইজার বা বডি অয়েল মাখুন আদ্রতা ধরে রাখার জন্য।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন