৬ষ্ঠ শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে পিয়নের ধ’র্ষণ

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি উপজেলা পরিষদের মাস্টাররোলের পিয়ন জাকির হোসেন (২৮) ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধ’র্ষণ করেছেন। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে মা’মলা করা হয়েছে। পিয়ন জাকির হোসেন উপজেলার নদনা ইউনিয়নের শাকতোলা গ্রামের জালাল আহমেদের ছেলে। ঘটনার পর থেকে তিনি পলাতক।

বুধবার সকালে এ ঘটনায় থানায় মা’মলা করে স্কুলছাত্রীর পরিবার। দুপুরে ধ’র্ষণের শিকার স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ। সোনাইমুড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা টিনা পাল বলেন, অভিযুক্ত জাকির সোনাইমুড়ি উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ের অস্থায়ী পিয়ন। জাকির দৈনিক হাজিরাভিত্তিক চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রোববার রাতে উপজেলার নদনা ইউনিয়নের নদনা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ওই ছাত্রী পাশের ঘরে টিভি দেখতে যায়। এ সময় পিয়ন জাকির হোসেন স্কুলছাত্রীকে উঠান থেকে তু’লে নিয়ে ধ’র্ষণ করে। ছাত্রীর চিৎকারে বাড়ির লোকজন এগিয়ে এলে ধ’র্ষক জাকির পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় জাকিরকে অভিযুক্ত করে থা’নায় লিখিত অভিযোগ দিলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পুলিশ। বুধবার সকালে অভিযোগটি মা’মলা হিসেবে গ্রহণ করা হয়। এ বিষয়ে সোনাইমুড়ি থানা পুলিশের ওসি আব্দুস সামাদ বলেন, এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মা’মলা করেন। ধ’র্ষক জাকিরকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত