গাড়ির নিচে আটকে পড়া নারীকে টেনে হিঁচড়ে ২ কিলো নিলো চালক!

প্রকাশিত: ডিসে ২, ২০২২ / ০৯:৪১অপরাহ্ণ
গাড়ির নিচে আটকে পড়া নারীকে টেনে হিঁচড়ে ২ কিলো নিলো চালক!

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দিকে যাচ্ছিলেন একটি প্রাইভেটকার। কিন্তু চারুকলা অনুষদের উল্টো পাশের টিএসসি অভিমুখী সড়কে রুবিনা আক্তার (৪৫) নামে এক নারী গাড়িটির নিচে পড়ে আটকে যান। সেই নারীকে নিয়ে ছুটলেন গাড়িটি। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তি ও গণতন্ত্র তোরণ পার হলে চালককে আটকে গণপিটুনি দেন স্থানীয় জনতা।

শুক্রবার বিকাল ৩টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ওই নারী তেজগাঁও এলাকায় বসবাস করতেন।

এদিকে জনতার গণপিটুনির শিকার চালককে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। চালক আজহার জাফর শাহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সাবেক সহযোগী অধ্যাপক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভুক্তভোগী নারী দেবর নূরুল আমিনের (৪০) বাইকে করে যাচ্ছিলেন। বাইকটি শাহবাগ পৌঁছলে প্রাইভেটকার চালক পেছন থেকে ধাক্কা দেন। ভুক্তভোগী ওই নারী প্রাইভেটকারের নিচে চাপা পড়েন এবং তাকে ঝুলিয়ে নিয়ে চালক নীলক্ষেতের দিকে যেতে থাকেন।

আশপাশের লোকজন পেছন থেকে বারবার গাড়ি থামাতে বললেও চালক না থামিয়ে চলতে থাকেন। তখন জনতা পেছন থেকে ধাওয়া করেন। এক সময় নীলক্ষেত মোড়ে লোকজন গাড়ির পথরোধ করেন। পরে গাড়ির নিচ থেকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে ওই নারীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ সময় জনতা গাড়ির চালককে গণপিটুনি দিয়ে মারাত্মক আহত করেন এবং গাড়িতে ব্যাপক ভাঙচুর করেন। একপর্যায়ে পুলিশ এসে জনতাকে নিয়ন্ত্রণ করে এবং চালককে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শাহাবাগ থানার ওসি নুর মোহাম্মদ বলেন, আহত নারী মারা গেছেন। চালক ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন আছেন। গাড়িটি জব্দ করা হয়েছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন