কে সেই ‘আরপি’? অবশেষে খোলাসা করলেন উর্বশী

প্রকাশিত: ডিসে ২, ২০২২ / ০২:২৬অপরাহ্ণ
কে সেই ‘আরপি’? অবশেষে খোলাসা করলেন উর্বশী

গত কয়েক মাস ধরেই আলোচনা ও ব্যঙ্গের শিকার হয়ে আসছেন বলিউড অভিনেত্রী উর্বশী রাওতেলা। ভারতীয় ক্রিকেটার ঋষভ পান্থের সাথে ডেটিং করার গুজব অনলাইনে প্রকাশিত হওয়ার পর থেকেই তোপের মুখে পড়েন তিনি। এরপর বিষয়টিকে ব্যাখ্যা করেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। তবে একের পর এক পোস্ট এবং ঋষভের পাল্টা জবাবে সমালোচনার তীর অভিনেত্রীর দিকেই ছুটতে থাকে।

তবে সম্প্রতি অভিনেত্রী বলেছেন, ‘তাঁর ধারণা ছিল না যে লোকেরা বিষয়টির এমন ভুল ব্যাখ্যা করবে। ’ আরপি নামের রহস্য উন্মোচন করে তিনি বলেন, “আরপি নাম নিয়ে এতো ধোঁয়াশা, সেই ‘আরপি’ আমার সহ-অভিনেতা রাম পোথিনেনির নামও হয়। লোকে রামকেও ‘আরপি’ ডাকে। তবে আমি জানতাম না যে ঋষভ পান্থকেও ‘আরপি’ নামে ডাকা হয়।

অভিনেত্রী বলেছেন, “যা বলা হয়েছিল তার অর্ধেক একেবারেই মিথ্যা। লোকেরা শুধু মনে মনে ধরে নেয় এবং এটি সম্পর্কে যা খুশি লেখে। যারা এই ধরনের গুজবে বিশ্বাস করে, আমি বলব তাদের একটু বিশ্লেষণ করা দরকার। আপনি যদি নিজের চোখে কিছু না দেখেন তাহলে শুধুমাত্র কিছু ইউটিউবার বা অন্য কারো কথায় আপনি কিভাবে এটি বিশ্বাস করবেন?”

এর আগে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও রাওতেলাকে নিয়ে অনেক কৌতুক করা হয়েছিল। বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ায় অবস্থানরত পান্থের পেছনে পেছনে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার জন্য ব্যঙ্গের শিকার হন তিনি। তবে পরবর্তীতে ট্যুরের ছবি শেয়ার করে অভিনেত্রী স্পষ্ট করেন যে তিনি পান্থের সাথে একই শহরে ছিলেন না। দুঃখ প্রকাশ করে অভিনেত্রী লিখেছিলেন, ‘সকলে আমাকে দোষারোপ করছে, ধমকাচ্ছে। কেউ আমার কথা চিন্তা করে না বা আমাকে সমর্থন করে না। ’

রাওতেলা সেই ভিডিও ক্লিপটির বিষয়েও কথা বলেন যেখানে তাঁর এবং পান্থের নাম ধরে সকলে চিৎকার করেছে। এটি তাকে প্রচন্ড অস্বস্তিতে ফেলেছে জানিয়ে অভিনেত্রী বলেছেন, “যারা দেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন তাদের সম্মান করা উচিত।

মানুষ তাদের সাথে পণ্যের মতো আচরণ করতে পারে না। তারা গলি মহল্লার মানুষের আচরণ করতে পারে না। এটাকে আমি গোপনীয়তা ভঙ্গকারী আক্রমন বলব এবং আমি এসব নিতে পারি না। ”

বিগত কয়েকমাস ধরেই চলছে ঋষভ পান্থ ও উর্বশীর মাঝে ‘অনলাইন যুদ্ধ’। একে অন্যের দিকে কাঁদা ছুড়ে চলেছেন বলিউড ও ক্রীড়া জগতের এই দুই তারকা। ২০১৮ সালে উর্বশীর সঙ্গে পান্থের প্রেমের খবর প্রকাশ্যে এসেছিল। কিন্তু পরে দুজনেরই ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়।

জানা যায়, পান্থ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও হোয়াটসঅ্যাপে উর্বশীকে ব্লক করে দিয়েছেন। এরপর বেশ কয়েকবার একে অন্যকে দোষারোপ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্ট্যটাস দিয়েছেন। তাদের মধ্যকার এই বিতর্ক যেন থামছেই না! একের পর এক মন্তব্য ও পাল্টাপাল্টি আক্রমনে দুজনেই থাকেন আলোচনার শীর্ষে। তবে এবার উর্বশীর এই স্বীকারোক্তিতে আগুনের উত্তাপ যদি কিছুটা কমে!

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন