মেসি ভাঙলেন ম্যারাডোনার যে রেকর্ড

প্রকাশিত: ডিসে ১, ২০২২ / ১০:৫৩অপরাহ্ণ
মেসি ভাঙলেন ম্যারাডোনার যে রেকর্ড

মেক্সিকোর বিপক্ষে একক নৈপুণ্যে আর্জেন্টিনাকে জিতিয়ে স্বপ্ন বাঁচিয়ে রেখেছিলেন লিওনেল মেসি। বুধবার রাতে পোল্যান্ডের বিপক্ষে বাঁচা-মরার শেষ ম্যাচে গ্লানি থেকে অধিনায়ককে বাঁচালেন সতীর্থরা।

প্রথমার্ধে মেসির পেনালটি মিসের পরও দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাক অ্যালিস্টার ও হুলিয়ান আলভারেসের গোলে পোল্যান্ডকে হারিয়ে গ্রুপসেরা হয়ে বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে উঠেছে আর্জেন্টিনা। তরুণ সতীর্থদের সৌজন্যে পেনালটি মিসের হতাশা ভুলে শেষ বাঁশি বাজার পর বাঁধনহারা উল্লাসে মেতে ওঠেন মেসি।

শুধু জয় নয়, দারুণ এক রেকর্ডও গড়েছেন মেসি। প্রয়াত কিংবদন্তি দিয়েগো ম্যারাডোনাকে (২১) পেছনে ফেলে বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার হয়ে সবচেয়ে বেশি ২২ ম্যাচ খেলার রেকর্ড এখন মেসির।

উপলক্ষ্যটা জয়ে রাঙাতে পেরে উচ্ছ্বসিত আর্জেন্টিনা অধিনায়ক জানালেন, বেঁচে থাকলে তার সাফল্যে মহাখুশি হতেন ম্যারাডোনা, ‘রেকর্ডের কথা কিছুদিন আগে জেনেছি। এ ধরনের রেকর্ড ভেঙে এগিয়ে চলা আনন্দের বিষয়। আমার মনে হয়, বেঁচে থাকলে মহাখুশি হতেন দিয়েগো। তিনি আমাকে অনেক স্নেহ করতেন। আমার সবকিছু ভালোভাবে এগোলে তিনি খুশি হতেন।’

মেসির দাবি, তার পেনালটি মিস দলকে আরও উজ্জীবিত করে তুলেছিল। খেলোয়াড়দের মধ্যে বাড়িয়ে দিয়েছিল জয়ের তাড়না, ‘পেনালটি মিস্ করে আমার এখনো রাগ হচ্ছে। তবে আমার ওই ভুলের পর দল আরও শক্তিশালী হয়ে ওঠে। সবার মনে এই বিশ্বাস জন্মে যে, আমরা জিততে পারব। যেকোনো মুহূর্তে গোল পাব। আর প্রথম গোলের পর আমরা যেভাবে চেয়েছি সেভাবেই ম্যাচ এগিয়েছে। দলের সবাই দায়িত্ব নিতে প্রস্তুত। এটিই আমাদের দলের শক্তির জায়গা।’

শেষ ষোলোর প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়াকে হালকাভাবে নিতে নারাজ মেসি, ‘ম্যাচটি খুবই কঠিন হবে। এখন যে কেউ যে কাউকে হারিয়ে দিতে পারে। সবাই এক্ষেত্রে সমান। প্রথম লক্ষ্য অর্জনের পর এখন এগিয়ে যেতে আরও ভালো প্রস্তুতি নিতে হবে।’

বিশ্বকাপে ২১ ম্যাচ খেলে আটটি গোল করেছেন ম্যারাডোনা। এর মধ্যে ১৯৮২ বিশ্বকাপে পাঁচ ম্যাচে দুটি গোল করেছিলেন তিনি। ১৯৮৬ বিশ্বকাপে সাত ম্যাচে করেছিলেন পাঁচ গোল। সেবার ম্যারাডোনার নেতৃত্বে বিশ্বকাপ জিতেছিল আর্জেন্টিনা। ১৯৯০ বিশ্বকাপে সাত ম্যাচ খেলে একটিও গোল করতে পারেননি দিয়েগো। ১৯৯৪ বিশ্বকাপে দুই ম্যাচ খেলে একটি গোল করেছিলেন তিনি।

বিশ্বকাপের মাঝেই ডোপ কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে আর খেলতে পারেননি ম্যারাডোনা।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন