১০০ ইউরো বাজীতে মেসির কাছে হেরেছেন শেজনি

প্রকাশিত: ডিসে ১, ২০২২ / ০৮:৩৫অপরাহ্ণ
১০০ ইউরো বাজীতে মেসির কাছে হেরেছেন শেজনি

হুলিয়ান আলভারেজের ক্রস থেকে লাফিয়ে হেড দিতে চেয়েছিলেন লিওনেল মেসি। অন্যদিকে বলটি তার মাথায় পৌঁছানোর আগেই ঠেকাতে চেয়েছিলেন পোলিশ গোলরক্ষক ভয়চেক শেজনি। কিন্তু বলের নাগাল পাননি এ গোলরক্ষক। উল্টো তার হাত লাগে মেসির মুখে।

শুরুতে বিষয়টি এড়িয়ে গেলেও পরে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারির ডাকে সাড়া দেন মাঠের রেফারি। মাঠের পাশে রাখা মনিটর দেখে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে বাজান পেনাল্টির বাঁশি। তবে এ ঘটনার আগে মেসির সঙ্গে কথা হয় গোলরক্ষক শেজনির। তখন মেসির সঙ্গে একটি বাজী ধরেই বসেছিলেন এ পোলিশ।

সর্বশেষ খবর দ্য ডেইলি স্টার বাংলার গুগল নিউজ চ্যানেলে।
শেজনি নিশ্চিত ছিলে ব্যাপারটা যখন সম্পূর্ণ অনিচ্ছাকৃত, সেক্ষেত্রে পেনাল্টি দিবেন না রেফারি। কিন্তু তাকে অবাক করে রেফারি বাজান পেনাল্টির বাঁশি। যদিও শেষ পর্যন্ত সে পেনাল্টি ঠেকিয়ে দিয়ে নায়ক তিনিই। কিন্তু মেসির সঙ্গে বাজীতে তো হেরে গেছেন।

ম্যাচ শেষে মেসির সঙ্গে সে সময়ের কি কথোপকথন হয়েছে জানিয়ে আরএআই স্পোর্টসকে শেজনি বলেন, ‘ভাবিনি (পেনাল্টি দেওয়া হবে)। আমরা (মেসির সঙ্গে) পেনাল্টির আগে কথা বলেছিলাম এবং আমি তাকে বলেছিলাম যে, আমি ১০০ ইউরো বাজি ধরতে পারি যে সে (রেফারি) এটা দেবে না।’

এরপর মজা করেই বলেন, ‘তো। আমি এখন মেসির সঙ্গে বাজি হেরে গেছি। বিশ্বকাপে এটা অনুমোদিত কি-না জানি না। আমি সম্ভবত এর জন্য নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছি। তবে আমি এখন এসব বিষয়কে পাত্তা দিচ্ছি না।’

ভাগ্য সঙ্গে থাকার কারণেই মেসির পেনাল্টি ঠেকাতে পেরেছেন বলে জানান এ গোলরক্ষক, ‘আমি এই প্রতিযোগিতায় দুইবার ভাগ্যকে সঙ্গে পেয়েছি। এটা একজন খেলোয়াড়ের ক্যারিয়ারে দুর্দান্ত একটি মুহূর্ত, বিশ্বকাপ সর্বোচ্চ পর্যায়ের এবং এটি বিশেষ কিছু। তবে এটাতেও কিছু কাজ আছে, কিন্তু মেসির পেনাল্টি বাঁচাতে হলে আপনার ভাগ্যও দরকার।’

১০০ ইউরোর বাজীতে হারলেও দুই তারকার মুখোমুখি লড়াইয়ে মেসিকে হতাশ করেছেন শেজনি। শুধু পেনাল্টিই নয়, মেসির আরও বেশ কিছু শট দারুণ দক্ষতায় ঠেকিয়ে দিয়েছেন। তবে ম্যাচ শেষে জয়ী দলের কাতারে মেসি। আবার হেরেও জয়ী শেজনি। কারণ এদিন ম্যাচ দেখে মনে হয়েছে, জয় নয়, যেভাবেই হোক দ্বিতীয় রাউন্ডে জায়গা করে নেওয়াই ছিল তাদের লক্ষ্য।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন