প্রেমের ফাঁদে ফেলে কিশোরীকে একাধিকবার ধ*র্ষ*ণ

প্রকাশিত: নভে ১৭, ২০২২ / ০৩:০২অপরাহ্ণ
প্রেমের ফাঁদে ফেলে কিশোরীকে একাধিকবার ধ*র্ষ*ণ

ফরিদপুরের সালথা সালথা উপজেলার গট্টি ইউনিয়নে প্রেমের ফাঁদে ফেলে কিশোরীকে (১৩) একাধিকবার ধ*র্ষ*ণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রে*প্তা*র করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) সালথা থানার ওসি মো. শেখ সাদিক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে বুধবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

গ্রে*ফ*তারকৃত ব্যক্তি উপজেলার ভাওয়াল ইউনিয়নের দজরা পুরুরা গ্রামের আবুল খায়ের শেখের ছেলে ইব্রাহিম শেখ (১৯)।

জানা গেছে, গত ৯ নভেম্বর সন্ধ্যায় ইব্রাহিম ভুক্তভোগী কিশোরীকে বিয়ের কথা বলে বাড়ি থেকে নিয়ে আসে। এ সময় বিয়ে না করে তার বাড়ির পাশে একটি ধানখেতে নিয়ে মেয়েটিকে রাতভর ধ*র্ষ*ণ করে ইব্রাহিম। পর দিন সকালে ভুক্তভোগী কিশোরীকে ফের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়।

এদিকে গত ১৪ নভেম্বর রাতে ভুক্তভোগী কিশোরীর বাড়িতে গিয়ে আবারও তাকে ধ*র্ষ*ণ করে ইব্রাহিম। এ সময় ভুক্তভোগী কিশোরীর পরিবার ও স্থানীয়রা তাকে হাতেনাতে ধরে পুলিশকে সংবাদ দেন।

সালথা থানার ওসি মো. শেখ সাদিক বলেন, ভুক্তভোগী কিশোরীর সঙ্গে ইব্রাহিমের তিন মাস ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছে। এ ঘটনায় ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে সালথা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ইব্রাহিমের বিরুদ্ধে একটি মা*ম*লা করেন। বুধবার তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

তিনি আরও জানান, গ্রেপ্তারকৃত ইব্রাহিম একাধিকবার ধ*র্ষ*ণের বর্ণনা দিয়ে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। ভুক্তভোগী কিশোরীও আদালতে ধ*র্ষ*ণের ঘটনার বর্ণনা দিয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। ভুক্তভোগী কিশোরীকে ফরিদপুর মেডিকেল হাসপাতালে পাঠিয়ে ডাক্তারি পরীক্ষা করানো হয়েছে। পরীক্ষা রিপোর্ট আসার পর ঘটনার সত্যতা আরও নিশ্চিত হওয়া যাবে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন