অন্যত্র বিয়ে করায় প্রেমিকের বাসায় এসে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর আত্ম*হ*ত্যা

প্রকাশিত: অক্টো ৫, ২০২২ / ১১:২২অপরাহ্ণ
অন্যত্র বিয়ে করায় প্রেমিকের বাসায় এসে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর আত্ম*হ*ত্যা

নুসরাত মীম ওরফে কুলসুম (২৬) নামের গণবিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর ম*রদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (৫ অক্টোবর) দুপুরে আশুলিয়ার পূর্ব ডেন্ডাবর এলাকার ইকবাল হোসেনের মালিকানাধীন বাড়ির ষষ্ঠ তলার একটি ফ্ল্যাটে পুলিশ তার মৃতদেহ পায়। ওই ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকতেন ফিরোজ আলম (৩১) নামের এক চিকিৎসক।

পুলিশ বলছে, ফিরোজের সঙ্গে প্রেম ছিল মীমের।

তাকে রেখে অন্য এক চিকিৎসককে বিয়ে করেন ফিরোজ। সেই জেরে তার বাসায় এসে আত্ম*হ*ত্যা করেছেন মীম। এ ঘটনায় ফিরোজকে আ*ট*ক করে থানায় নেওয়া হয়েছে।

মীম গণবিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী এবং বরিশালের বাবুগঞ্জ থানার দেহেরগতি গ্রামের মৃত শাহজাহান তালুকদারের মেয়ে। আটক ফিরোজ ঢাকার দোহার থানার রাধানগর গ্রামের মো. ওমর আলীর ছেলে। তিনি স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় মেডিক্যাল অফিসার হিসেবে কর্মরত।

ছয় মাস আগে বিয়ে করেন ফিরোজ। ইকবাল হোসেনের বাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে থাকতেন তিনি। সেখানে তার স্ত্রী মাঝেমধ্যে আসতেন।

পুলিশ বলছে, ফিরোজ বিয়ে করেছেন জানতে পেরে তার ফ্ল্যাটে হাজির হন মীম। তাকে ঘরে রেখেই বারান্দায় স্ত্রীর সঙ্গে মোবাইলে কথা বলতে যান ফিরোজ। পরে বারান্দার দরজা ঘরের ভেতর থেকে আটকে ফাঁ*স লাগিয়ে আত্ম*হ*ত্যা করেন মীম।

বারান্দা থেকে ফিরোজ এ ঘটনা দেখে চিৎকার করলে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ এসে দরজা ভেঙে ঘর থেকে লাশ এবং বারান্দা থেকে ফিরোজকে উদ্ধার করে।

আশুলিয়া থানার এসআই জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ঘটনাস্থল থেকে নি*হ*তের লা*শ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। চিকিৎসককে আ*ট*ক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। নিহতের ভাই বাদী হয়ে আত্মহ*ত্যা*র প্ররোচণার দায়ে ওই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মা*ম*লা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন