গোপন প্রেমে করায় প্রেমিকার হাতে বিষ খেয়ে ইমামের মৃত্যু

প্রকাশিত: সেপ্টে ২৩, ২০২২ / ১০:৪৩অপরাহ্ণ
গোপন প্রেমে করায় প্রেমিকার হাতে বিষ খেয়ে ইমামের মৃত্যু

চট্টগ্রামের আনোয়ারায় একটি মসজিদের ইমামকে ডেকে এনে বিষ খাইয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে প্রেমিকার বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় মামলার পর সেই প্রেমিকা ও তার ভাইকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সকালে তারেকে চট্টগ্রাম জেলা জজ আদালতে পাঠানো হলে বিচারক তাদেরকে কারাগারে পাঠান।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মির্জা মোহাম্মদ হাসান। যাকে হত্যার অভিযোগ করা হয়েছে তার নাম মো. ইলিয়াস। তিনি বাঁশখালী উপজেলার গন্ডামারা এলাকার বাসিন্দা। ইমামতি করতেন আনোয়ারার রায়পুর ইউনিয়নে গহিরা এলাকার বার আউলিয়া জামে মসজিদে। গ্রামের বাড়ি বাঁশখালীতে তার ১৪ মাস বয়সী এক সন্তান ও স্ত্রী রয়েছে।

পুলিশ বলছে, গহিরা এলাকায় মসজিদে ইমামতি করার সুবাদে ওই এলাকার একটি মেয়ের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান ইলিয়াস। সেই সম্পর্কের জেরে প্রেমিকা ও তার পরিবারের হাতে খুন হন তিনি।

গ্রেপ্তার দুজন হলেন ইলিয়াসের প্রেমিকা ২৮ বছর বয়সী তরুণী ও তার বড় ভাই।

ইলিয়াসের ভাই মো. ইদ্রিস বলেন, ‘বৃহস্পতিবার রাতে আমার ভাই আমাকে, আমার ছোটভাই ইউসুফকে এবং পরিচিত এক চাচাকে একটা ম্যাসেজ দেন যে তাকে ডেকে নিয়ে বিষ খাইয়ে দিয়েছে। পরে শুনি আমার ভাই হাসপাতালে মারা গেছে।’

গোপন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার বিষয়ে পুলিশ যে তথ্য দিয়েছে সেটি জেনেছেন ইলিয়াসের ভাইও। তিনি বলেন, ‘ওই এলাকার একটা মেয়ের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়টা ধারণা করে তাকে সেখান থেকে নিয়ে আসা হয়েছিল। তবু মেয়েটা বুহস্পতিবার রাতে ডেকে নিয়ে আমার ভাইকে মেরে ফেলছে। আমরা মেয়ে, তার দুই ভাই ও বাবাকে আসামি করে মামলা করেছি। পুলিশ তদন্ত করছে।’

পুলিশ জানায়, গভীর রাতে ইলিয়াসকে রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেসময় চিকিৎসক পরীক্ষা করে তাকে মৃত ঘোষণা করে।

আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মির্জা মোহাম্মদ হাসান বলেন, ‘মেয়েটির সঙ্গে ইলিয়াসের একটা সম্পর্ক ছিল, আমরা এর প্রাথমিক প্রমাণ পেয়েছি। হয়ত এই সম্পর্ক থেকেই তাকে ডেকে নিয়ে বিষ খাইয়ে হত্যা করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘এই ঘটনায় নিহতের ভাই শুক্রবার চারজনকে আসামি করে মামলা করেছে। আমরা দুজনকে গ্রেপ্তার করেছি। বিষয়টি অধিকতর তদন্ত করা হচ্ছে।’

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন