সেভিয়ার মাঠে গেরো কাটালো রিয়াল মাদ্রিদ

সেভিয়ার মাঠে খেলা যেন রিয়াল মাদ্রিদের জন্য দুঃস্বপ্ন হয়ে উঠেছিল। সেখানে একের পর এক ম্যাচ হারছিল স্পেনের সফলতম দলটি। রোমাঞ্চ ছড়ানো এক ম্যাচে কাটলো সেই গেরো। করিম বেনজেমার গোলে জয় নিয়ে ফিরল জিনেদিন জিদানের দল।

লা লিগার ম্যাচে রোববার রাতে ১-০ গোলে জিতেছে রিয়াল। ২০১৫ সালের পর এই প্রথম সেভিয়ার মাঠে জিতল তারা। লিগে আট ম্যাচ পর অক্ষত রাখতে পারল নিজেদের জাল।

নিজেদের সবশেষ ম্যাচে গত বুধবার উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে পিএসজির কাছে ৩-০ গোলে হেরেছিল রিয়াল। এর পরদিন উয়েফা ইউরোপা লিগে একই ব্যবধানে জিতেছিল সেভিয়া।

রিয়ালের বিপক্ষে এদিন বল দখলে এগিয়ে ছিল সেভিয়াই। কিন্তু ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় হার এড়াতে পারেনি তারা।

রামোন সানচেস পিসুয়ানে আক্রমণ-প্রতি আক্রমণে শুরু থেকে জমে ওঠে লড়াই। আক্রমণে একটু এগিয়ে ছিল রিয়াল। প্রথম সত্যিকারের সুযোগও তৈরি করে তারা। ৩৫তম মিনিটে ম্যাচে প্রথম শট থাকে লক্ষ্যে।

করিম বেনজেমার কাছ থেকে বল পেয়ে বুলেট গতির শট নিয়েছিলেন এদেন আজার। তবে দারুণ দক্ষতায় তার চেষ্টা ব্যর্থ করে দেন সেভিয়া গোলরক্ষক। তিন মিনিট পর আবার দলের ত্রাতা তিনি। এবার ঝাঁপিয়ে ব্যর্থ করে দেন দানি কারবাহালের শট।

প্রতি আক্রমণে ৬৪তম মিনিটে দলকে এগিয়ে নেন বেনজেমা। বাইলাইন থেকে কারবাহালের দারুণ ক্রসে চমৎকার হেডে জাল খুঁজে নেন ফরাসি এই স্ট্রাইকার। সেভিয়ার মাঠে এটাই তার প্রথম গোল। চলতি মৌসুমে এ নিয়ে মাত্র দ্বিতীয় গোল হজম করল হুলেন লোপেতেগির শিষ্যরা।

গোল হজমের পর বাড়ে সেভিয়ার আক্রমণের ধার। তৈরি করে বেশ কয়েকটি সুযোগ। তবে থিবো কর্তোয়াকে পরাস্ত করতে পারেনি তারা।

৮৭তম মিনিটে বল জালে পাঠিয়েছিলেন খানিক আগে বদলি নামা হাভিয়ের এরনান্দেস। তবে এই স্ট্রাইকার অফসাইডে থাকায় গোল দেননি রেফারি। আসরে তৃতীয় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রিয়াল। প্রথম হারের তেতো স্বাদ পায় সেভিয়া।

এই জয়ে ৫ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে উঠে এসেছে রিয়াল। গোল পার্থক্যে এগিয়ে থেকে শীর্ষে আছে আথলেতিক বিলবাও। সমান ম্যাচে সেভিয়ার পয়েন্ট ১০।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত