সাবেক স্বামীর বিয়েতে যে বার্তা দিলেন শবনম ফারিয়া

প্রকাশিত: জুলা ৩, ২০২২ / ১১:৩৯অপরাহ্ণ
সাবেক স্বামীর বিয়েতে যে বার্তা দিলেন শবনম ফারিয়া

ছোটপর্দার আলোচিত অভিনেত্রী শবনম ফারিয়ার পর বিয়ে করে ফের সংসারী হলেন তার সাবেক স্বামী হারুনুর রশীদ অপুও। অভিনেত্রী নিজে তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ খবর শেয়ার করেছেন। তবে অপুর বিয়েটা কবে হয়েছে, সেটা উল্লেখ করেননি।

শবনম ফারিয়া তার পেজে সাবেক স্বামী অপু ও তার বর্তমান স্ত্রীর একটি ছবি পোস্ট করেছেন। নবদম্পতিকে শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন। ক্যাপশনে অভিনেত্রী সংক্ষেপে লিখেছেন, ‘অভিনন্দন ও শুভকামনা।’

যদিও এই শুভেচ্ছাবার্তা তার মন থেকে আসেনি বলে মন্তব্য নেটজেনদের। এই শুভেচ্ছাবার্তার পেছনে লুকিয়ে আছে অনেক অভিমান এবং ক্ষোভ- এমনটাই দাবি নেটগেরিকদের। সুজন খান নামে একজনের মন্তব্য, ‘শুভেচ্ছা জানিয়ে বুকটা হালকা করা ছাড়া কী-ই বা করার আছে ফারিয়ার।’

শারমিন আঁখি নামে এক নেটিজেন অবশ্য ফারিয়ার পক্ষ নিয়ে লিখেছেন, এটা তো ভালো মন মানসিকতার পরিচয়, যেটা সবার থাকে না। আরেক নেটিজেন লিখেছেন, ‘শবনম ফারিয়া অনেক ভালো মনের মানুষ, সবার মন জয় করতে পারেন। তিনি সবার সুখ চান।’

এভাবে ভালো-মন্দ শতাধিক মন্তব্য জমা পড়েছে অভিনেত্রীর ফেসবুক পোস্টটির নিচে।

দীর্ঘদিন প্রেমের সম্পর্কে থাকার পর ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে হারুনুর রশীদ অপুকে বিয়ে করেন শবনম ফারিয়া। তবে টেকেনি সে ভালোবাসার সংসার। এক বছর ৯ মাসের মাথায় আলাদা হয়ে যায় ফারিয়া ও অপুর চলার পথ।

বিচ্ছেদের পর অপু এবং তার পরিবারের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তুলেছিলেন ফারিয়া। তার গায়ে হাত তোলা হয়েছিল বলেও ফেসবুকের এক পোস্টে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ‘দেবী’ সিনেমার এই নায়িকা। পাল্টা অভিযোগ করেছিলেন তার সাবেক স্বামী অপুও।

তবে সেই কাঁদা ছোড়াছুড়ি বেশি দিন স্থায়ী হয়নি। এরপর চলতি বছরের মে মাসে জাহিন রহমান নামে একজনকে গোপনে বিয়ে করে ফের সংসারী হন শবনম ফারিয়া। সে বিয়ের খবর জানতে পারেনি কাকপক্ষীও।

কিন্তু তথ্য প্রযুক্তির এ যুগে কি কিছু গোপন থাকে? গোপন থাকেননি ফারিয়ার বিয়ের খবরও। এবার তারই পথে হাটলেন হারুনুর রশীদ অপুও। একলা জীবন ভালো লাগছিল না তারও। তাইতো হলেন দোকলা। জীবনের নতুন অধ্যায়ের শুরুতে সাবেক স্ত্রীর শুভেচ্ছাও পেলেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন