পালিয়ে গেল বরপক্ষ, বিয়ের খাবার এতিমখানায়

প্রকাশিত: জুন ৩০, ২০২২ / ০৯:০৪অপরাহ্ণ
পালিয়ে গেল বরপক্ষ, বিয়ের খাবার এতিমখানায়

কুমিল্লায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপে এক কিশোরীর বাল্যবিয়ে বন্ধ হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার বারপাড়া ইউনিয়নের ভবানীপুর গ্রামে ওই বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেয় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আব্দুর রহমান। এ সময় বরযাত্রীর জন্য রান্না করা খাবার পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে পার্শ্ববর্তী এতিমখানায়।

জানা গেছে, ওই কিশোরীর সঙ্গে বরুড়া উপজেলার শিলমুড়ি ইউনিয়নের চণ্ডিপুর গ্রামে এক যুবকের বিয়ের প্রস্তুতি চলছিল বৃহস্পতিবার দুপুরে।

খবর পেয়ে সেখানে অভিযান চালায় উপজেলা প্রশাসন। এসময় জন্মনিবন্ধন যাচাই করে কনের বয়স দেখা যায় ১৬ বছর। এ ছাড়া সে দশম শ্রেণির ছাত্রী। পরে বাল্য বিয়েটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

এ সময় প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে বিয়ে বাড়ি থেকে বরপক্ষের লোকজন পালিয়ে যায়। পরে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবেন না মর্মে কনের বাবা মোসলেম মিয়ার কাছ থেকে মুচলেকা নেওয়া হয়।

সদর দক্ষিণ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আব্দুর রহমান বলেন, কনের বয়স ১৮ বছর না হওয়ায় বিয়েটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এ সময় বরযাত্রী পক্ষ পালিয়ে যাওয়ায় তাদের খাবারগুলো পার্শ্ববর্তী বাহারুল উলুম এতিমখানায় দিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন