ঢাকা ২ লাখ টন গম আমদানি করতে চায় রাশিয়া থেকে

প্রকাশিত: জুন ২৩, ২০২২ / ০২:০৮অপরাহ্ণ
ঢাকা ২ লাখ টন গম আমদানি করতে চায় রাশিয়া থেকে

সরকার থেকে সরকার (জি টু জি) চুক্তিতে রাশিয়া থেকে গম আমদানির চেষ্টা করছে বাংলাদেশ। গত মাসে দেশটির বৃহত্তম গম সরবরাহকারী ভারত স্থানীয় বাজারে দাম বাড়ায় শস্যটি রপ্তানি নিষিদ্ধ করার পর এ চেষ্টা করা হচ্ছে।

বুধবার (২২ জুন) সরকারি ও বাণিজ্য কর্মকর্তারা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

কর্মকর্তারা বলেন, বিশ্বের বৃহত্তম গম রপ্তানিকারক রাশিয়ার সঙ্গে আমদানি চুক্তি ঢাকাকে উন্নত বিশ্বের চেয়ে কম মূল্যে চাহিদা মেটাতে সহায়তা করবে।

বাংলাদেশের খাদ্য মন্ত্রণালয়ের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, চুক্তিটি চূড়ান্ত করতে বৃহস্পতিবার রাশিয়ার সঙ্গে একটি ভার্চুয়াল বৈঠকে বসছে বাংলাদেশ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই কর্মকর্তা বলেন, আমরা প্রাথমিকভাবে রাশিয়া থেকে কমপক্ষে ২ লাখ টন গম চাইব।

খাদ্য মন্ত্রণালয় তাৎক্ষণিকভাবে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

বাংলাদেশ প্রায় ৭০ লাখ টন গম আমদানি করে এবং গত বছর এর দুই তৃতীয়াংশেরও বেশি ভারত থেকে এসেছিল।

ভারতের রপ্তানি নিষেধাজ্ঞার পরে বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক দরপত্রের মাধ্যমে সরবরাহ সুরক্ষিত করার চেষ্টা করেছিল কিন্তু উচ্চ মূল্যের কারণে সেগুলো বাতিল হয়েছে।

বাংলাদেশ সরকার দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণে লড়াই করছে, মে মাসে মূল্যস্ফীতি ছিল আট বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। দেশটির গমের মজুত তিন বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন এক লাখ ৬৬ হাজার টন।

কিন্তু মস্কোর ওপর পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞার কারণে রাশিয়ান গমের মূল্য পরিশোধ করা ঢাকার জন্য একটি চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াবে।

সরকারের ওই কর্মকর্তা বলেন, বৈঠকে অর্থ পরিশোধসহ সব বিষয়ে আলোচনা হবে। দেখা যাক।

সূত্র : রয়টার্স

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন