ভারতে তরুণীকে দলগত ধর্ষণের পর বিক্রি

প্রকাশিত: মে ১০, ২০২২ / ১২:০২অপরাহ্ণ
ভারতে তরুণীকে দলগত ধর্ষণের পর বিক্রি

ভারতের উত্তর প্রদেশের ঝাঁসিতে ১৮ বছরের এক তরুণী নিজের বিয়ের দাওয়াত দিতে বের হয়েছিলেন। ওই সময় কয়েক জন তাকে অপহরণ করে। অভিযোগ উঠেছে, অপহরণের পর তরুণীকে দলগত ধর্ষণ করা হয়েছে। তার পর মধ্যপ্রদেশের এক ব্যক্তির কাছে বিক্রিও করে দেওয়া হয় তরুণীকে।

পুলিশ জানিয়েছে, নির্যাতিতা তরুণী অভিযোগে জানিয়েছেন- প্রথমে তাকে রাজনৈতিক এক নেতার কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে অন্য এক জনের সঙ্গে ঝাঁসির পাশের জেলা মধ্যপ্রদেশের দাতিয়ায় থাকতে বাধ্য করা হয়।

অভিযোগে নির্যাতিতা আরো জানিয়েছেন, গত ১৮ এপ্রিল গ্রামেরই তিন যুবক তাকে অপহরণ করে। ২১ এপ্রিল নিজের বিয়ে উপলক্ষে যাচ্ছিলেন নিমন্ত্রণ করতে। প্রথম কয়েক দিন তাকে একটি জায়গায় রাখার পর এক রাজনৈতিক নেতার হাতে তুলে দেওয়া হয়।

পুলিশের দাবি, ওই রাজনৈতিক নেতা কিছু দিন নির্যাতিতাকে নিজের কাছে রাখেন এবং তার পর দাতিয়া জেলার এক ব্যক্তির কাছে বিক্রি করে দেন। নিজের ইচ্ছার বিরুদ্ধে নির্যাতিতাকে ওই ব্যক্তির সঙ্গেই থাকতে বাধ্য করা হয়।

দাতিয়ায় ওই ব্যক্তির কাছে কিছু দিন থাকার পর নির্যাতিতা কোনো রকমে তার বাবাকে ফোন করে সব খুলে বলেন। এর পর পুলিশের সাহায্য নিয়ে নির্যাতিতাকে পাথারি গ্রাম থেকে উদ্ধার করা হয়।

তেহরাউলির সার্কেল অফিসার (সিও) অনুজ সিং জানান, নির্যাতিতার অভিযোগের ভিত্তিতে অপহরণ, সংঘবদ্ধ ধর্ষণ এবং বিক্রি করে দেওয়ার মামলা করা হয়েছে। ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে নির্যাতিতার বয়ান নথিভুক্ত করার কাজও শেষ হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। যদিও এখন পর্যন্ত অভিযুক্তদের কাউকেই আটক করতে পারেনি পুলিশ।

সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন