বক্তব্য দেওয়ার সময় মারা গেলেন ব্যাংক কর্মকর্তা

প্রকাশিত: জানু ২৩, ২০২২ / ০৯:৪০অপরাহ্ণ
বক্তব্য দেওয়ার সময় মারা গেলেন ব্যাংক কর্মকর্তা

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেওয়ার সময় এক ব্যাংক কর্মকর্তা মারা গেছেন। তার নাম পলাশ চন্দ্র বর্মন (৩৮)। তিনি সোনালী ব্যাংকের কুড়িগ্রাম শাখার প্রিন্সিপাল অফিসের প্রধান কর্মকর্তা। গতকাল শনিবার রাতে রাজারহাট উপজেলার আদর্শ বিএল উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেওয়ার সময় তার মৃত্যু হয়।

সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন সোনালী ব্যাংক প্রিন্সিপাল অফিস কুড়িগ্রামের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম-ইন চার্জ) ওয়াহেদুন্নবী। পলাশ চন্দ্র বর্মনের বাড়ি লালমনিরহাট জেলার হাতিবান্ধা উপজেলার নওদাবাস এলাকায়।

সোনালী ব্যাংক কুড়িগ্রাম শাখার এ জি এম লুৎফুল হোসেন জানান, পলাশ চন্দ্র বর্মন কুড়িগ্রাম অফিসের ডিজিএম অফিসে কর্মরত ছিলেন। পাশাপাশি সনাতন ধর্মাবলম্বী হিন্দুদের জাতীয় সংগঠন ‘আনন্দমার্গ জাকৃতি সংঘ’ এর একজন সদস্য হওয়ায় তিনি মাঝেমধ্যে ধর্মসভায় অংশ নিতেন।

সোনালী ব্যাংক কুড়িগ্রাম সূত্র জানায়, শনিবার সন্ধ্যায় একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেওয়ার সময় হঠাৎ হার্ট অ্যাটাক হলে সভার আয়োজকরা তাকে দ্রুত কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক পরীক্ষা করে জানান, হার্ট অ্যাটাকে (হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে) ঘটনাস্থলেই পালাশের মৃত্যু হয়েছে।

পলাশের চাচাতো ভাই মৃদুল রায় সংবাদমাধ্যমকে জানান, পলাশ চন্দ্রের আগে থেকে হার্টের সমস্যা ছিল না। কীভাবে কী হয়ে গেল আমরা বুঝতে পারলাম না। শনিবার রাতেই নিহতের মরদেহ কুড়িগ্রাম থেকে নিজ বাড়ি লালমনিরহাটের নওদাবাসে নিয়ে যাওয়া হয়।

সূত্র : বিডি প্রতিদিন

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন