মৌসুমী যে কারণে মিশা-জায়েদের দলে

প্রকাশিত: জানু ১৩, ২০২২ / ০৭:৫১অপরাহ্ণ
মৌসুমী যে কারণে মিশা-জায়েদের দলে

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির গত ২০১৯-২০২১ মেয়াদের দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে সভাপতি পদে মিশা-জায়েদ প্যানেলের বিরুদ্ধে লড়েছিলেন চিত্রনায়িকা মৌসুমী। সেবার ওই প্যানেলের কাচে পরাজিত হয় মৌসুমীর পুরো প্যানেল। এবার প্রতিপক্ষ সেই মিশা-জায়েদের প্যানেলে ভিড়লেন চলচ্চিত্রের প্রিয়দর্শিনী খ্যাত এই নায়িকা। গুরুত্বপূর্ণ কোনো পদে নয়, কার্যকারি সদস্যপদে লড়ছেন তিনি।

মৌসুমী কেনো গতবারের প্রতিপক্ষের প্যানেলে নির্বাচন করতে এলেন? এ প্রশ্ন চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট প্রায় সবার কাছেই। বিষয়টি নিয়ে এতোদিন মুখ খুলেননি এই নায়িকা। তবে এফডিসি পাড়ার গুঞ্জন, গত মেয়াদে মৌসুমীকে নির্বাচনে দাঁড় করিয়ে তার কিছু কাছের শিল্পীরা পেছন থেকে সরে গিয়েছিলো। তাই এবার তাদের পেছনে নেই তিনি। অভিমানে প্রতিপক্ষের দলেই ভিড়েছেন মৌসুমী।

বুধবার এফডিসিতে মনোনয়ন জমা দিতে এসেছিলেন মৌসুমী। এ সময় মিশা-জায়েদের প্যানেলের হয়ে নির্বাচন করার কারণ জানতে চাওয়া হয় তার কাছে। মৌসুমী বলেন, ‘গতবছর থেকই দেখে আসছি মিশা-জায়েদ শিল্পীদের জন্য ভালো কাজ করছে। বিগত দিনে তাদের কাজগুলো দেখলেই বুঝতে পারবেন শিল্পী সমিতির হয়ে তারা সবগুলো কাজই ভালো করেছে। আমি তাদের সেই ভালো ভালো কাজের সমর্থক হিসেবেই তাদের প্যানেলের হয়ে দাঁড়িয়েছি।’

মৌসুমী বলেন, ‘আমি জাস্ট এক্সিকিউটিভ কমিটিতে দাঁড়িয়েছি। আমি শিল্পীদের পাশে সবসময় ছিলাম। সে প্রত্যয় থেকে আমি এবারও দূরে নেই। আমি ফ্যামিলিগত সমস্যা ও অন্যান্য সমস্যার কারণে নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ পদে করতে পারছি না । তবে আমি মিশা-জায়েদের সঙ্গে আছি। ‘

মিশা-জায়েদের প্যানেলে আসা নিয়ে আর বেশি কিছু জানাতে চাইলেন না মৌসুমী। তবে আগামীতে জয়ী হলে মিশা-জায়েদ কমিটির কাছে প্রত্যাশার কথা জানালেন।

মৌসুমী বলেন, তারা তো ভালো কাজ করছেই আশা করি আরো ভালো কাজ করবে। যেহেতু এখন সিনেমা কম নির্মাণ হচ্ছে তাই আমাদের কাজও কম। তাই কাজ ও অন্যান্য সমিতির সঙ্গে সমন্বয় করে আমাদের সমিতিকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাবে। পাশাপাশি শিল্পীদের পক্ষে কথা বলা। তারা যে বড় পরিকল্পনা করছে আশা করি তারা সব বাবস্তবায়ন করতে পারবে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন