প্রজ্ঞাপন জারি: রওশন বিরোধীদলীয় নেতা, জিএম কাদের উপনেতা

জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদকে একাদশ জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা ও দলটির চেয়ারম্যান জিএম কাদেরকে উপনেতা করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

সোমবার জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়।

সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমদ খান স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, জাতীয় সংসদের সরকারি দলের বিরোধিতাকারী সর্বোচ্চ সংখ্যক সদস্য নিয়ে গঠিত সংসদীয় দলের নেতা রওশন এরশাদকে (ময়মনসিংহ-৪) জাতীয় সংসদের কার্যপ্রণালী বিধি (২) (১) (ট) অনুযায়ী বিরোধী দলের নেতা এবং এক উপনেতা (পারিতোষিক ও বিশেষাধিকার) অধ্যাদেশ, ১৯৭৯ মোতাবেক লালমনিরহাট-৩ থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য গোলাম মোহাম্মদ কাদেরকে উপনেতা হিসেবে স্পিকার স্বীকৃতি দিয়েছেন।

এর ফলে টানা দুই সংসদে বিরোধীদলীয় নেতার আসনে বসছেন রওশন। এর আগে দশম সংসদেও তিনি বিরোধীদলীয় নেতার দায়িত্ব পালন করেন। একাদশ সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টি প্রধান বিরোধী দল হলে পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বিরোধীদলীয় নেতা হন। পরে তার মৃত্যুতে এ পদটি শূণ্য ঘোষণা করা হয়।

এর আগে জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা হিসেবে জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ এবং উপনেতা হিসেবে পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের নাম প্রস্তাব করে রোববার স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীকে চিঠি দেয়া হয়।

রোববার সন্ধ্যায় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার শামিম হায়দার পাটোয়ারী ওই চিঠি স্পিকারের দফতরে পৌঁছে দেন। চিঠিতে সই করেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

পরে সংসদ অধিবেশন শেষে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বিরোধীদলীয় নেতা ও উপনেতার নাম জমা দেয় জিএম কাদেরের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল। জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

পরে সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা বলেন, সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ ও উপনেতা জিএম কাদেরকে মনোনীত করার বিষয়টি আনুষ্ঠানিকভাবে স্পিকারকে দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

এর আগে বিকালে জাতীয় সংসদের লবিতে জাতীয় পার্টির সংসদীয় দলের সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় বিরোধীদলীয় নেতা হিসেবে রওশন এরশাদ আর উপনেতা হিসেবে জিএম কাদেরের নাম সর্বসম্মতভাবে প্রস্তাব করা হয়।

চলতি সংসদে রওশন এরশাদ বিরোধীদলীয় উপনেতার দায়িত্বে আছেন। তিনি বিরোধীদলীয় নেতার দায়িত্বে আসীন হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সঙ্গে উপনেতার পদটি শূন্য হবে।

সংসদীয় দলের বৈঠক শেষে জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মশিউর রহমান রাঙ্গা সাংবাদিকদের বলেছিলেন, ‘আমাদের দলের সংসদ সদস্যরা সংসদীয় দলের সভায় বিরোধী দলের নেতা হিসেবে রওশন এরশাদকে মনোনয়ন করে স্পিকারের কাছে চিঠি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এর আগে শনিবার রাতে বারিধারা ক্লাবে রুদ্ধদ্বার বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করবেন জিএম কাদের। জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতার দায়িত্ব পালন করবেন রওশন এরশাদ।

আর পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুতে শূন্য হওয়া রংপুর-৩ আসনের উপনির্বাচনে প্রার্থী হবেন তার ছেলে সাদ এরশাদ। এভাবেই সমঝোতায় পৌঁছান জাতীয় পার্টির দুই শীর্ষ নেতা জিএম কাদের ও রওশন এরশাদ।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত