জিমের মধ্যেই গনধর্ষণের শিকার তরুণী, গ্রেপ্তার ৩

প্রকাশিত: জানু ২, ২০২২ / ০৩:০৬অপরাহ্ণ
জিমের মধ্যেই গনধর্ষণের শিকার তরুণী, গ্রেপ্তার ৩

ভারতের দিল্লির বুদ্ধ বিহার এলাকায় একটি জিমে এক তরুণী দলবদ্ধধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে, গত বৃহস্পতিবারের ওই ঘটনায় গতকাল শুক্রবার তিন জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস এ খবর জানিয়েছে।

পুলিশ জানায়—২১ বছর বয়সি এক তরুণীকে নির্যাতন, হুমকিসহ ধর্ষণ করে ১৭ বছর বয়সি এক কিশোরসহ তিন জন। তাদের মধ্যে একজন ওই তরুণীর নিয়োগকর্তা। গতকাল শুক্রবার অভিযুক্ত তিন জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে, কিশোরকে পাশের রাজ্য থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেপ্তার করা দুই প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তি হলেন—জিমের ৩৯ বছর বয়সি মালিক এবং একটি কারখানার ৩৫ বছর বয়সি মালিক।

পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেপ্তার করা কারখানা মালিকের অধীনে কাজ করতেন ভুক্তভোগী তরুণী।

দিল্লি পুলিশের ডেপুটি কমিশনার (রোহিনী) প্রণব তায়াল বলেন, তিন অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬ডি, ৫০৯, ৩২৩ এবং ৫০৬ ধারার অধীনে গণধর্ষণ, যৌন হয়রানি, আক্রমণ এবং অপরাধমূলক ভয় দেখানোর পরিপ্রেক্ষিতে মামলা নথিভুক্ত করা হয়েছে।

জানা গেছে, ভুক্তভোগী তরুণী স্বামীকে সঙ্গে নিয়ে পুলিশের কাছে গত বৃহস্পতিবার অভিযোগ করে মামলা দায়ের করেন। তরুণী অভিযোগ করেন, তাঁর বস এবং আরও দুজন তাঁকে ধর্ষণ করার পর হুমকি দিয়েছে যে, তিনি যদি পুলিশে যান, তাহলে তাঁকে প্রাণে মেরে ফেলা হবে।

ভুক্তভোগী অভিযোগে জানান, গত বৃহস্পতিবার কারখানায় কাজ শেষে বাড়ি ফিরলে তাঁর বস তাঁকে জিমে আসতে বলেন সেখানে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজের জন্য। তাঁর বস জানান, জিমটি তাঁর বন্ধুর। সেখানে যেতেই জিমের দরজা বন্ধ করে তরুণীর ওপর চড়াও হয় তিন জন এবং ধর্ষণের শিকার হন তরুণী।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন