রাজন সাহা বললেন ‘উল্টে যাওয়া ফেরিতে থাকার কথা ছিল আমার’

প্রকাশিত: অক্টো ২৭, ২০২১ / ১১:৩১অপরাহ্ণ
রাজন সাহা বললেন ‘উল্টে যাওয়া ফেরিতে থাকার কথা ছিল আমার’

মানিকগঞ্জে পাটুরিয়া ৫ নম্বর ফেরিঘাট এলাকায় আজ বুধবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে রো রো ফেরি আমানত শাহ তীরে ভিড়ার সময় যানবাহন নিয়ে উল্টে যায়। উল্টে যাওয়ার আগে মাঝনদীতে ওই ফেরিটির তলা ফেটে যায় বলে জানা গেছে।

ফেরিটি ডুবে যাওয়ার পর উদ্ধার কার্যক্রম পরিচালনা করছে ফায়ার সার্ভিস। এদিকে ফেরিটিতে তার আসার কথা ছিল বলে কালের কণ্ঠকে জানিয়েছেন সংগীত পরিচালক রাজন সাহা। শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত বাতিল করায় প্রাণে বেঁচে গেছেন বলে রাজন সাহা বিষয়টি জানিয়ে সৃষ্টিকর্তার প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন।

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ফেরিঘাটে ১৭টি পণ্যবাহী ট্রাক নিয়ে উল্টে যাওয়া রো রো ফেরি আমানত শাহ উদ্ধারে এখন কাজ চলছে। এ ঘটনায় ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিটসহ ডুবুরিদল উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে।

পাশাপাশি ডুবে যাওয়া ফেরিতে ট্রাক উদ্ধারের কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে উদ্ধারকারী জাহাজ হামজা। এ পর্যন্ত কোনো মানুষকে জীবিত বা মৃত উদ্ধার করতে পারেনি বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন। এদিকে মুন্সীগঞ্জ থেকে প্রত্যয় নামের আরেকটি উদ্ধারকারী জাহাজ সন্ধ্যার দিকে পৌঁছার কথা রয়েছে।

রাজন সাহা বুধবার দুপুরে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমার বন্ধুরা ওই ফেরিতে ওঠার জন্য অপেক্ষা করছিল। তাদেরকে বলি, আমি আজকে যেতে পারছি না। কারণ আমার বাচ্চাটা হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। আমি যাচ্ছি না দেখে ওরা আর যায়নি। যদি ওই ফেরিতে আমরা থাকতাম তাহলে নির্ঘাত প্রাণে মরতাম।’

তিনি আরো বলেন, রাজবাড়ী কলেজের একটা অনুষ্ঠানের বিষয়ে মিটিং ছিল। যার কারণে আমাদের ওই সময়ে অতিক্রম করার কথা ছিল ফেরিতে।

ফেসবুকে লিখেছেন, মৃত্যুর খুব কাছ থেকে বেঁচে গেলাম, মহান সৃষ্টিকর্তার আশীর্বাদ এবং আপনাদের ভালোবাসায়। আজকে যে ফেরি ডুবে গেল, সেই ফেরিতে গাড়িসহ আমার থাকবার কথা ছিল ১০০% ! রাত ২টায় একটা বিশেষ কারণে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করি- আজ রাজবাড়ী যাব না !
আপনারা আমার পরিবারের জন্য প্রার্থনা করবেন।

এদিকে ফেরিতে থাকা কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী কালের কণ্ঠকে বলেন, আজ সকাল ৯টার দিকে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ঘাট থেকে ১৭টি পণ্যবাহী ট্রাক ও ১০টির মতো মোটরসাইকেল নিয়ে পাটুরিয়া ঘাটের উদ্দেশে রওনা দেয় আমানত শাহ নামের ফেরিটি।

মাঝনদীতে গিয়ে হঠাৎ ফেরির তলা ফেটে পানি উঠতে থাকে। এ সময় ফেরির মাস্টার দ্রুত ফেরিটিকে পাটুরিয়া পাঁচ নম্বর ঘাটে ভেড়ান। পরে দুটি ট্রাক দ্রুত নামতে সক্ষম হলেও বাকি ট্রাক নিয়ে ফেরিটি মুহূর্তের মধ্যে ডান দিকে উল্টে যায়। ফেরিতে থাকা ট্রাকচালক ও যাত্রীরা দ্রুত সময়ের মধ্যে যে যার মতো নেমে যান। তবে সবাই উঠতে সক্ষম হয়েছে কি না তা নিশ্চিত করে কেউ বলতে পারেনি।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন