Bangladesh News24

সব

১৪ ফেব্রুয়ারি কমপক্ষে ৫০জন নিহত হয়!

১৪ ফেব্রুয়ারি ভ্যালেন্টাইন’স ডে হিসাবে সারা বিশ্বে পরিচিত হলেও, বাংলাদেশের ইতিহাসে বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ এই দিন। এই দিনটিকে পালন করেন ‘স্বৈরাচার প্রতিরোধ দিবস’ হিসাবে।

১৯৮৩ সালের ১৪ই ফেব্রুয়ারি সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে শুরু হয় ছাত্র আন্দোলন, কালক্রমে যেটি গণআন্দোলনে রূপ নিয়েছিল।তখন জেনারেল এরশাদের সামরিক সরকারের বিতর্কিত শিক্ষানীতির বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীরা প্রতিরোধ গড়ে তোলে।

এরই ধারাবাহিকতায় ১৪ই ফেব্রুয়ারিতে স্মারকলিপি দিতে শিক্ষার্থীরা মিছিল করে সচিবালয়ের দিকে যাবার সময় পুলিশ গুলি চালায়। এতে জয়নাল ও দীপালি সাহাসহ নিহত হন অন্তত ১০জন।

তবে সাবেক ছাত্রনেতা ও ডাকসুর সাধারণ সম্পাদক মোশতাক হোসেন বিবিসিকে বলেন, আমরা দেখেছি অনেক মৃতদেহ পুলিশ ট্রাকে করে নিয়ে যাচ্ছে। শুধু জয়নাল নামের একজন ছাত্রকে আমরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যেতে পারি। কিন্তু চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে সেই মৃতদেহ বটতলায় নিয়ে এসে আমরা বিক্ষোভ করি।

তিনি বলেন, সেদিন পুলিশের গুলিতে অন্তত ৫০জন নিহত হয়েছিল বলে আমরা ধারণা করি। কিন্তু দুইজনের মৃতদেহ পাওয়া যায়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বাকি মৃতদেহগুলো গুম করে ফেলে। তাদের স্বজনরা অনেক খোঁজাখুঁজি করে স্বজনদের কোনো খোঁজ আর পাননি।

তবে হতাহতের এই সংখ্যার বিষয়ে তখন সরকারিভাবে কোনো বক্তব্য দেওয়া হয়নি।

উল্লেখ, তখনকার শিক্ষামন্ত্রী ড. মজিদ খান ১৯৮২ কালের ২৩ সেপ্টেম্বর একটি নতুন শিক্ষানীতির প্রস্তাব করেন। সেখানে প্রথম শ্রেণী থেকেই আরবি ও দ্বিতীয় শ্রেণী থেকে ইংরেজি শিক্ষা বাধ্যতামূলক করা হয়। উচ্চশিক্ষা অর্জনের জন্য মাপকাঠি করা হয় মেধা অথবা পঞ্চাশ শতাংশ ব্যয়ভার বহনের ক্ষমতা।

এই নীতি ঘোষণার পর থেকেই আন্দোলন শুরু করে শিক্ষার্থীরা। সে বছর ১৭ সেপ্টেম্বর ওই শিক্ষানীতির বিরুদ্ধে আন্দোলনের বিষয়ে একমত হয় ছাত্র সংগঠনগুলো।

এরই ধারাবাহিকতায় ১৪ই ফেব্রুয়ারিতে স্মারকলিপি দিতে শিক্ষার্থীরা মিছিল করে সচিবালয়ের দিকে যাবার সময় পুলিশ গুলি চালায়। এতে জয়নাল ও দীপালি সাহা সহ নিহত হন অন্তত ১০জন।

সেদিনের সেই মিছিলে ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সে সময়ের সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের কর্মী তসলিমা রানা নীলা। বর্তমানে লন্ডনের বাসিন্দা মিজ. নীলা বলেন, ৩৫ বছর আগের ঘটনা হলেও সেই দিনটি এখনো তার পরিষ্কার মনে আছে।

তিনি বলেন, তখন ১৪ই ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবস হিসাবে এখনকার মতো পালন করা হতো না। ১৯৮৩ সালের সেই দিনটি ছিল এরশাদ বিরোধী আন্দোলনে একটি চরম মুহূর্ত।

ছাত্রসমাজের দাবি ছিল একটি অবৈতনিক বৈষম্যহীন শিক্ষানীতি। কিন্তু শিক্ষামন্ত্রী ড. মজিদ খান যে নীতি ঘোষণা করেন, সেখানে বাণিজ্যিকীকরণ আর ধর্মীয় প্রতিফলন ঘটেছে বলে শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে। তাই শুরু থেকেই ওই নীতির বিরোধিতা করতে শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।

তসলিমা রানা নীলা বলেন, সেদিন সকাল ১০টায় বটতলায় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের ছাত্রদের জমায়েত হবার কথা। সেখান থেকে শিক্ষানীতি প্রত্যাহারের দাবিতে স্মারকলিপি নিয়ে শিক্ষা ভবনে যাওয়া হবে।

মোশতাক হোসেন বলেন, আমরা দেখেছি অনেক মৃতদেহ পুলিশ ট্রাকে করে নিয়ে যাচ্ছে। শুধু জয়নাল নামের একজন ছাত্রকে আমরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যেতে পারি। কিন্তু চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে সেই মৃতদেহ বটতলায় নিয়ে এসে আমরা বিক্ষোভ করি।

তিনি বলেন, সেদিন থেকে এই দিনটিকে স্বৈরাচার প্রতিরোধ দিবস হিসাবে বলা হয়।

বিকালে এবং পরের দিনও শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে পুলিশের অভিযান চলে বলে তিনি জানান। পুলিশ অনেক ছাত্র-ছাত্রীকে গ্রেপ্তার করে নির্যাতন করা হয়। তিনি নিজেও গ্রেপ্তার হন।

মোশতাক হোসেন জানান, জয়নাল ছাড়া পরে মোজাম্মেল আইয়ুব নামের আরেকজনের মৃতদেহ পাওয়া যায়। জাফর, কাঞ্চন, দীপালি সাহা নামের একটি ছোট বাচ্চাসহ অনেকে নিখোঁজ হয়ে যায়, যাদের পরে আর কোনো খোঁজ মেলেনি।

এর কিছুদিন পরে সরকার একটি ঘোষণা দিয়ে শিক্ষানীতিটি স্থগিত করে।

image-id-716284

‘যে ভাষায় এখন মাত্র তিনজন কথা বলেন’

image-id-716280

কেন খাবেন পুষ্টিতে ভরপুর আনারস?

image-id-716169

কাতারের সমুদ্রে বাংলাদেশের যুদ্ধজাহাজের মহড়া

image-id-716062

কলম্বাসের ২,৮০০ বছর আগেই আবিষ্কার আমেরিকার!

পাঠকের মতামত...
image-id-716020

যে ৫ কারণে বাড়ছে বিবাহ বিচ্ছেদ

প্রেম করেই হোক বা পারিবারিক ভাবে বিয়ের পরে নানা কারণেই...
image-id-715999

গলব্লাডার ক্যানসারের ৭ লক্ষণ

আপনার গলব্লাডার আপনার লিভারের ঠিক নিচে অবস্থিত। এ প্রতিবেদনে গলব্লাডার...
image-id-715833

প্রিয়ার আগে চোখ মেরেছিলেন তারাও, তবে …

ভারতজুড়ে এখন ব্যাপক জনপ্রিয় নাম প্রিয়া প্রকাশ ওয়ারিয়ার। তার চোখের...
image-id-715701

হৃদরোগের ঝুঁকি কমায় মিষ্টি আলু

মিষ্টি আলু শুধু খেতেই সুস্বাদু নয়, এতে রয়েছে নানা পুষ্টিগুণ।...
image-id-716401

‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণ পদক’ পাচ্ছেন চবির ১৫ শিক্ষার্থী

শিক্ষাজীবনে কৃতিত্বপূর্ণ ও অসাধারণ ফলাফলের জন্য ২০১৫ ও ২০১৬ সালে...
image-id-716392

মনে হচ্ছে পুলিশের হাতে গণতন্ত্রের মৃত্যু পরোয়ানা : রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বর্তমান সরকার...
image-id-716389

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় আলুর রস

আলু অতি পরিচিত একটি খাবার। রান্না, সিদ্ধ কিংবা পুড়িয়ে- সব...
image-id-716385

নিদাহাস ট্রফিতে ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা

দারুণ ফর্মে আছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ব্যাট হাতে মাঠে...
© Copyright Bangladesh News24 2008 - 2018
Published by bdnews24us.com
Email: info@bdnews24us.com / domainhosting24@gmail.com