Bangladesh News24

সব

ভর্তি পরীক্ষা: ঢাবিতে জালিয়াতির দায়ে ১২ জনের কারাদণ্ড

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‌‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ‘ডিভাইস’ নিয়ে জালিয়াতি করায় ১২ শিক্ষার্থীকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শুক্রবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিসে আদালত বসিয়ে এই শাস্তি দেন ঢাকা জেলার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদ এলাহী।

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ কেন্দ্র থেকে আটক আল ইমরান ও নূরে আলম আরিফ, কাজী মোতাহার হোসেন ভবন থেকে আবু হানিফ নোমান এবং উদয় স্কুল থেকে মো. শাহ পরান, মতিঝিল সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে শৌমিকা প্রতিচি সাত্তার, মতিঝিল আইডিয়াল কলেজ থেকে খন্দকার সিরাজুল ইসলাম ও মো. রাকিবুল ইসলাম, লালমাটিয়া মহিলা কলেজ থেকে মোছা. আরিফা বিল্লাহ তামান্না, শেখ বোরহানউদ্দিন পোস্ট গ্রাজুয়েট কলেজ থেকে মো. আবুল বাশার ও নাহিদ হাসান কাউসার এবং আহম্মেদ বাওয়ানি একাডেমি কেন্দ্র থেকে এসএম জাকির হোসাইন ও মো. তানভীর হোসাইন।

সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে তাদের বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের ভেতরে ও বাইরের বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে আটক করে নিয়ে আসে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল টিম।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদ এলাহী সাংবাদিকদের বলেন, “পরীক্ষা চলাকালীন ইলেকট্রনিক ডিভাইসের মাধ্যমে জালিয়াতি করার ১২ জনকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।”

প্রতিকেন্দ্রে মেটাল ডিটেক্টর থাকার পরেও ডিভাইস নিয়ে কীভাবে পরীক্ষার্থীরা হলে ঢুকেছে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আমজাদ আলী বলেন, পরীক্ষার্থীরা একসাথে তাড়াতাড়ি করে কেন্দ্রে প্রবেশ করছে। এতে ভিড়ের ভেতরে অনেক সময় তাদের চিহ্নিত করা যাচ্ছে না।

“তাই প্রবেশ পথে দায়িত্বরতদের সামনের পরীক্ষায় মেটাল ডিটেক্টর ব্যবহারে আরো সচেতন করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয় জালিয়াতি ঠেকাতে কঠোর ব্যবস্থা নিবে।”

বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও ক্যাম্পাসের বাইরের মোট ৮৭টি কেন্দ্রে ‘ক’ ইউনিটের পরীক্ষা সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত চলে। এবার এক হাজার ৭৬৫ আসনের বিপরীতে অংশ নেয় ৮৯ হাজার ৫০৬ জন ভর্তিচ্ছু ছাত্র-ছাত্রী।

এই ইউনিটের পরীক্ষা চলাকালীন সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান কার্জন হল পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

image-id-716910

প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে এইচএসসি পরীক্ষায় আসছে দুই পরিবর্তন

image-id-716904

‘হাইকোর্টে রায়ের নথি পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে’

image-id-716886

নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ চায় যুক্তরাষ্ট্র

image-id-716880

‘মাদার অব হিউম্যানিটি, কী অদভুত সম্বোধন’

পাঠকের মতামত...
image-id-716859

সংসদে ‘শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউট বিল-২০১৮’ পাস

দেশের তরুণদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ ও শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি...
image-id-716856

অসুস্থতা দেখিয়ে খালেদার জামিনের সুযোগ নেই: অ্যাটর্নি জেনারেল

নিম্নআদালত থেকে মামলার নথি আসারপরই বেগম জিয়ার জামিন আবেদনের ওপর...
image-id-716842

৮ মহানগরীতে শিল্প কারখানা স্থাপনের অনুমতি নয়

ঢাকাসহ আটটি মহানগরীতে শিল্পপ্রতিষ্ঠান স্থাপনের অনুমতি দেওয়া হবে না। নদীর...
image-id-716836

খালেদার জামিনে দুই যুক্তি গ্রহণযোগ্য নয় : দুদকের আইনজীবী

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার...
image-id-716922

‘আমি শ্রীদেবীকে ঘৃণা করি’

‘শ্রীদেবীকে মেরে ফেলার জন্য আমি ভগবানকে ঘৃণা করি এভাবে চলে...
image-id-716919

ঘরে বাইরে আটকে মন, তাই সংসার হল না নায়িকার!

“আমার প্রাণের মানুষ আছে প্রাণে। তাই হেরি তাই সকলখানে। আছে...
image-id-716916

‘এটি আমাকে বেঁচে থাকার সাহস দেয়’

দেশীয় শোবিজে বিচ্ছেদ লেগেই আছে। জনপ্রিয় বেশ কয়েকজন অভিনয় শিল্পীর...
image-id-716913

অবশেষে জানা গেল শ্রীদেবীর অকাল মৃত্যুর কারণ

অভিনেত্রী শ্রীদেবীর আকস্মিক মৃত্যু হয়েছে। সাধারণ পাঠক মহলে এই আকস্মিক...
© Copyright Bangladesh News24 2008 - 2018
Published by bdnews24us.com
Email: info@bdnews24us.com / domainhosting24@gmail.com