Bangladesh News24

সব

পুলিশ সদরে বৈঠক করেছে ভারতের তদন্ত সংস্থা এনআইএ

জঙ্গি নেতা সোহেল মাহফুজকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে ঢাকায় এসেছে ভারতীয় জাতীয় তদন্ত সংস্থা এনআইএ। ইতোমধ্যে পুলিশ সদর দফতরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছে এনআইএ কর্মকর্তারা। পুলিশ সদর দফতরে সোমবার বিকেল ৩টা থেকে সাড়ে ৪টা পর্যন্ত এ বৈঠক হয়।

পুলিশ সদর দফতর সূত্রে জানা গেছে, রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিসান বেকারিতে হামলার অন্যতম পরিকল্পনাকারী জঙ্গি নেতা সোহেল মাহফুজ। সোহেল মাহফুজ বর্ধমানের খাগড়াগড় বিস্ফোরণ কাণ্ডের মূল আসামি। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গের প্রথম জেএমবির সদস্য, যিনি বোমা বানানোর তালিম দেন। মূলত তাকেই জিজ্ঞাসাবাদ করতে ঢাকায় এসেছে এনআইএর তিন সদস্যের প্রতিনিধি দল। এনআইএর আইজি সঞ্জীব সিংয়ের নেতৃত্বে তিন সদস্যের টিম রোববার রাতেই ঢাকায় পৌঁছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (গোপনীয় শাখা) মনিরুজ্জামান বলেন, হলি আর্টিসানে জঙ্গি হামলায় গ্রেনেড সরবরাহকারী নব্য জেএমবির সোহেল মাহফুজকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন তারা। এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে।

‘বাংলাদেশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের কর্মকর্তাদের কাছে সোহেল মাহফুজকে কলকাতায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার দাবি জানাবে এনআইএ’ ভারতীয় সংবাদপত্রে প্রকাশিত খবরের পর জানতে চাইলে এ কর্মকর্তা কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

২০১৪ সালের ২ অক্টোবর পশ্চিমবঙ্গের খাগড়াগড়ে বাংলাদেশের জেএমবির ঘাঁটিতে বোমা বিস্ফোরণে মোস্ট ওয়ানটেড নাসিরুল্লাহ ওরফে হাতকাটা নাসিরুল্লাহ। ঢাকার গোয়েন্দাদের কাছে এই নাসিরুল্লাহ সোহেল মাহফুজ ওরফে হাতকাটা মাহফুজ নামে পরিচিত। গত ৬ জুলাই বাংলাদেশে উত্তরবঙ্গের চাঁপাইনবাবগঞ্জে গ্রেফতারকৃত হাতকাটা সোহেল মাহফুজই এই নাসিরউল্লাহ।

নব্য জেএমবির মিলিটারি শাখার প্রধান সোহেল মাহফুজকে সম্প্রতি চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার একটি আম বাগান থেকে গ্রেফতার করা হয়। পশ্চিমবঙ্গের মালদহ ও বাংলাদেশের রাজশাহী সীমান্ত এলাকায় দীর্ঘদিন পালিয়েছিলেন তিনি। পশ্চিমবঙ্গের ভূমি ব্যবহার করে বাংলাদেশে সরকার উৎখাত ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের জাল পেতেছিল জেএমবি। ভারতের মাটিতে বসবাস করে জঙ্গি সংগঠন জেএমবির তৎপরতা নিয়েও এনআইএ জানতে চাইবে।

২০১৪ সালের খাগড়াগড় বিস্ফোরণ কাণ্ডের অন্যতম আসামি সোহেল মাহফুজের মাথার দাম ১০ লাখ টাকা ধার্য করেছিল এনআইএ। তিনি এক সময় জেএমবি সংগঠনের ভারতীয় শাখার আমির (প্রধান) ছিলেন। পরে নব্য জেএমবিতে যোগ দিয়ে দ্রুত সংগঠনের শীর্ষ নেতা বনে যান।

২০০৬ সালে সোহেল মাহফুজ ভারতে পালিয়ে গিয়েছিলেন। খাগড়াগড় বিস্ফোরণের পর আবার বাংলাদেশে চলে আসেন। গুলশানের হলি আর্টিসানে জঙ্গি হামলায় ব্যবহৃত গ্রেনেড নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জেএমবির তৈরি। ইমপ্রোভাইসড হ্যান্ড গ্রেনেড তৈরির মূল কারিগর ছিলেন সোহেল মাহফুজ। এ ছাড়া নব্য জেএমবির নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন তিনি।

এর আগে ২০১৪ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার থেকে ময়মনসিংহ আদালতে নেয়ার পথে হামলা চালিয়ে জঙ্গিরা সালাউদ্দিন ও সালেহীনসহ তিন জঙ্গিকে ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনায় সোহেল মাহফুজ মূল পরিকল্পনাকারী ছিলেন বলে দাবি পুলিশের।

image-id-676252

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি জার্মানি, সুইডেন ও ইইউ’র সমর্থন

image-id-676229

বারী সিদ্দিকীকে দেখতে হাসপাতালে সংস্কৃতিমন্ত্রী

image-id-676216

নিরপেক্ষ নির্বাচনের কথা বললেই সংবিধানের দোহাই : খসরু

image-id-676150

এ সরকারের আমলে গুম ও খুন বেড়েছে : মওদুদ

পাঠকের মতামত...
image-id-676147

রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতা যুদ্ধাপরাধের শামিল

যুক্তরাষ্ট্রে সফররত সিনেটররা বলেছেন, রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নৃশংসতা যুদ্ধাপরাধের...
image-id-676145

বিমানবন্দরে কাদের-ফখরুলের দেখা-কথা

নীলফামারীর সৈয়দপুর বিমানবন্দরে দেখা হলো আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল...
image-id-676133

অস্তিত্ব রক্ষার্থে বিএনপি স্বেচ্ছায় নির্বাচনে অংশ নেবে: খাদ্যমন্ত্রী

সংবিধান সংশোধন করে বিএনপির দাবি মেনে নেয়ার কোনো সুযোগ নেই...
image-id-676130

রোহিঙ্গা ইস্যুতে সরকারের অবদান স্বীকার করে না বিএনপি: তোফায়েল

নিজ দেশের স্বার্থেই ভারত, চীন ও রাশিয়া রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের...
image-id-676249

যে আয়াত পাঠে ঘরে দারিদ্রতা প্রবেশ করে না

মুসলমানদের ধর্মগ্রন্থ পবিত্র কোরআন মানব জীবনের সকল সমস্যার সমাধান দিতে...
image-id-676246

বজরঙ্গি ভাইজানের মুন্নি সম্পর্কে অজানা ১৮টি তথ্য

১. সম্প্রতি হর্ষালির মতো জনপ্রিয়তা কোনোও শিশুশিল্পী পায়নি। সালমান খান...
image-id-676241

মানুষের হৃদয় ছুঁয়ে দিয়ে সবার অন্তরে স্থান করে নিয়েছে এই যমজ বোন!

মানুষের হৃদয় ছুঁয়ে দিয়ে সবার অন্তরে স্থান করে নিয়েছে এই...
image-id-676238

মক্কা-মদিনা সম্পর্কে মহানবী (সা.)-এর যে ভবিষ্যদ্বাণী

সৌদি আরবের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে গোটা বিশ্বেই আলোচনা চলছে। কেউ...
© Copyright Bangladesh News24 2008 - 2017
Published by bdnews24us.com
Email: info@bdnews24us.com / domainhosting24@gmail.com